বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দিল্লি পুলিশে আক্রান্ত কর্মীদের আর্থিক সাহায্য একলাখ থেকে কমে ১০ হাজারে নামল
স্যানিটাইজেশনের উদ্দেশে ২ দিনের জন্য দিল্লির গাজিপুর ফলবাজার বন্ধ করার ঘো,ণা করছেন পুলিশকর্মীরা। বৃহস্পতিবার পিটিআই-এর ছবি। (PTI)
স্যানিটাইজেশনের উদ্দেশে ২ দিনের জন্য দিল্লির গাজিপুর ফলবাজার বন্ধ করার ঘো,ণা করছেন পুলিশকর্মীরা। বৃহস্পতিবার পিটিআই-এর ছবি। (PTI)

দিল্লি পুলিশে আক্রান্ত কর্মীদের আর্থিক সাহায্য একলাখ থেকে কমে ১০ হাজারে নামল

  • মৃত পুলিশকর্মীর পরিবারকে দেওয়া ক্ষতিপূরণ অর্থ ৭ লাখ থেকে বাড়িয়ে ১০ লাখ করা হয়েছে।

বাহিনীর মধ্যে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়ার ফলে আক্রান্ত কর্মীদের মাথাপিছু আর্থিক সাহায্য একলাখ থেকে কমিয়ে ১০,০০০ করল দিল্লি পুলিশ। 

কর্তব্যরত অবস্থায় করোনা সংক্রমিত পুলিশকর্মীর সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে দিল্লি পুলিশে। শুক্রবার বাহিনীর তরফে এক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘সম্প্রতি এক বৈঠকে ঠিক হয়েছে, এত বেশি সংখ্যক পুলিশকর্মী সংক্রমিত হচ্ছেন বলে এই সমস্ত ক্ষেত্রে সাহায্যের অর্থ সমান ভাবে কর্মীদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হবে। এই কারণে অনুদান অর্থের পরিমাণ একলাখ টাকা থেকে কমিয়ে দশ হাজার করা হয়েছে।’

একই সঙ্গে বৈঠকে স্থির হয়েছে যে, করোনায় মৃত পুলিশকর্মীর পরিবারকে দেওয়া ক্ষতিপূরণ অর্থ ৭ লাখ থেকে বাড়িয়ে ১০ লাখ করা হবে।

এ পর্যন্ত করোনা সংক্রমণে দিল্লি পুলিশের মাত্র একজন কর্মীই প্রাণ হারিয়েছেন। গত ৫ মে মারা যান উত্তর-পশ্চিম দিল্লির ভারত নগর থানায় কর্মরত বছর একত্রিশের এক কনস্টেবল। 

গত সপ্তাহে দিল্লি পুলিশের তরফে নির্দেশিকা জারি করে বলা হয়েছে, কর্মীদের প্রতিদিন স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। নির্দেশিকা অনুসারে, যে কোনও পুলিশকর্মী অসুস্থ বোধ করলে, সর্দি-কাশি, গলা জ্বালা, জ্বর বা শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দিলে অবিলম্বে ডিউটি অফিসারের কাছে জানাতে হবে। 

দফতরের হিসেব অনুযায়ী, এ পর্যন্ত দিল্লি পুলিশের মোট ২৫০ কর্মী করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন। 

বন্ধ করুন