বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দিল্লিতে সপ্তাহান্তের কার্ফুর মধ্যে বিধি থেকে ছাড় পাচ্ছেন কারা? তালিকা একনজরে
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

দিল্লিতে সপ্তাহান্তের কার্ফুর মধ্যে বিধি থেকে ছাড় পাচ্ছেন কারা? তালিকা একনজরে

  • রাজধানীতে করোনার গ্রাফের রকেট গতি ঠেকাতে ইতিমধ্যেই সপ্তাহান্তের কার্ফু জারি করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০ টা থেকে সোমবার ভোর ৫ টা পর্যন্ত জারি থাকছে এই বিধি।

করোনার ওমিক্রন কাঁটার মধ্যে হু হু করে বাড়তে শুরু করে দিয়েছে আতঙ্ক। দেশ জুড়ে শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনার জেরে আক্রান্তের সংখ্যা ১,১৭,১০০ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশে ওমিক্রনের আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বেড়ে গিয়ে, ৩০০৭ এ গিয়ে দাঁড়িয়েছে। এদিকে রাজধানী দিল্লির পরিস্থিতি ক্রমেই উদ্বেগজনক দিকে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবারের রিপোর্ট অনুযায়ী রাজধানী দিল্লিতে করোনায় শেষ একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫,০৯৭ জন। যা গতদিনের থেকে বেড়েছে ৪১ শতাংশ। রাজধানীতে করোনার গ্রাফের রকেট গতি ঠেকাতে ইতিমধ্যেই সপ্তাহান্তের কার্ফু জারি করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০ টা থেকে সোমবার ভোর ৫ টা পর্যন্ত জারি থাকছে এই বিধি। তবে এই বিধির মাঝেও ছাড় পাওয়া যাবে। কারা এই বিধি থেকে ছাড় পাচ্ছেন তার বিস্তারিত তথ্য ডিডিএম-এর তরফে দেওয়া হয়েছে। একনজরে দেখে নেওয়া যাক, দিল্লির সপ্তাহান্তের কার্ফু ঘিরে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

1

দিল্লির সপ্তাহান্তের কার্ফুর মধ্যে অত্যাবশ্যকীয় কাজের সঙ্গে সম্পর্কিতদেরই ছাড় দেওয়া হচ্ছে। তবে তার জন্য দেখাতে হবে নির্দিষ্ট কিছু পরিচয়পত্র। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবাকেই বা খুব প্রয়োজনীয় কাজের জন্যই বিধি থেকে ছাড় পাওয়া যাবে বলে দিল্লির স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে।

2

দিল্লি সরকার জানিয়েছে, জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন এমন ব্যক্তিরা , যাঁদের উপযুক্ত পরিচিতি পত্রের অভাব রয়েছে, তাঁরা ই-পাসের জন্য আবেদন করতে পারেন। এক্ষেত্রে দিল্লি সরকারের ওয়েবসাইটে গিয়ে সপ্তাহান্তের কার্ফুর জন্য আবেদন করা যেতে পারে।

3

দিল্লি সরকার জানিয়েছে, যাঁরা বিভিন্ন ঘরের কাজ করে থাকেন (পরিচারক বা পরিচারিকা, মালি হিসাবে কর্মরত) তাঁরাও এই কার্ফুর আওতায় থাকবেন। সপ্তাহান্তে তাঁদের ঘোরাফেরা করা চলবে না। দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সংক্রমণ রোখার জন্য এই টুকু করাই যেতে পারে।

4

সপ্তাহান্তের কার্ফুতে ই-কমার্সের হোম ডেলিভারিও বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবা বা খাওয়া দাওয়া, ওষুধের হোম ডেলিভারি জারি থাকবে।

5

জরুরি পরিষেবার সঙ্গে সম্পর্কিত অফিসার বা কর্মীরা উপযুক্ত পরিচয় পত্র দেখালে ছাড় পাবেন বিধি থেকে। সরকারি অফিসার, পিএসইউ বা সায়াত্তাধিকারের ক্ষেত্র সম্পর্কিত অফিসারদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম লাগু।

6

বিয়ে সংক্রান্ত জমায়েতের ক্ষেত্রে কোনও একক ব্যক্তি বা সর্বাধিক ২০ জন বিয়ের কার্ডের সফ্ট বা হার্ড কপি দেখালে ছাড় পাবেন।

7

বিচারপতি, বিচার সম্পর্কিত আদালতের কর্মীরা, বা বিচারকে কেন্দ্র করে কোনও পক্ষ যদি এই সময়ে যাতায়াত করেন,তবে তাঁদেরও উপযুক্ত পরিচয় পত্র দেখাতে হবে। সঙ্গে থাকবে, সার্ভিস আইডি, ফটো এন্ট্রি কার্ড ও আদালতের তরফে প্রবেশের অনুমতির কার্ড।

8

বিভিন্ন দূতাবাসের অফিসার ও কর্মীদের উপযুক্ত পরিচিতি পত্র দেখাতে হবে।

9

গর্ভবতী মহিলা বা রোগীরা যাঁরা হাসপাতালে যাচ্ছেন বা চিকিৎসকের কাছে যাবেন, তাঁদেরও দেখাতে হবে উপযুক্ত পরিচিতি পত্র। সঙ্গে থাকতে হবে চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন।

10

কোভিড টেস্ট করাতে গেলেও, সঙ্গে রাখতে হবে উপযুক্ত পরিচিতি পত্র।

11

সপ্তাহান্তের এই সময়সীমার মধ্যে যদি কোনও পরীক্ষার্থী পরীক্ষার জন্য বের হন , তাহলে তাঁকে অ্যাডমিট কার্ড দেখাতে হবে।

12

পরীক্ষার সঙ্গে সম্পর্কিত ব্যক্তিদের উপযুক্ত পরিচয়পত্র দেখাল মিলবে ছাড়।

বন্ধ করুন