বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গ্রেটার তিপ্রাল্যান্ডের লিখিত প্রতিশ্রুতি দিন, তারপর জোট, ত্রিপুরায় জোরালো ডাক

গ্রেটার তিপ্রাল্যান্ডের লিখিত প্রতিশ্রুতি দিন, তারপর জোট, ত্রিপুরায় জোরালো ডাক

প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মন (Twitter Photo) (HT_PRINT)

তিনি বলেন, ওই লোকগুলো টাকা, মুখ্যমন্ত্রীর পদ, এমপি সব কিছুর লোভ দেখিয়েছে। আমি অসুস্থ। আমি চিরদিন থাকব না। এটা আপনাদের জন্য় আমার শেষ লড়াই। যখন আমি মারা যাব তখন মানুষ বলবেন, প্রদ্যোত কিশোর মানিক্য তাঁর জাতির জন্য লড়াই করেছিলেন।

প্রিয়াঙ্কা দেববর্মন

ভোটের আগে ত্রিপুরায় কংগ্রেস ও সিপিএমের মধ্য়ে জোটের সম্ভাবনা ক্রমে জোরালো হচ্ছে। তবে TIPRA Motha পার্টির প্রধান প্রদ্য়োৎ কিশোর মানিক্য সোমবার সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, জোটে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও আপোসের ব্যাপার নেই। বৃহত্তর তিপ্রাল্যান্ডের লিখিত আশ্বাস না পেলে কোনও জোটে যাব না।

এর সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, আমরা লড়াই থেকে সরছি না। ভূমিপুত্রদের জন্য় আমাদের লড়াই চলবে। আমাদের ভোটের ফায়দা তোলার দরকার নেই।

TIPRA Motha পার্টির প্রধান প্রদ্য়োৎ কিশোর মানিক্য জানিয়েছেন, নেতাদের কথায় আমরা ভুলছি না। আপনারা শিক্ষিত। লিখিতভাবে আমাদের জানিয়ে দিন আপনারার গ্রেটার তিপ্রাল্যান্ড দেবেন। যদি লিখিতভাবে এটা দিতে না পারেন তবে আমাকে কেনার চেষ্টা করবেন না। তিপ্রা মোথা মহিলা শাখার সমাবেশে একথা জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে তিনি বলেন, মন্দির, মসজিদের কথা বলা হচ্ছে কিন্তু হাসপাতাল আর স্কুলের কথা বলা হচ্ছে না। পাকিস্তানের কথা ওরা বলছে কিন্তু বাংলাদেশের কথা বলছে না। ওটা তো পাশেই রয়েছে।

ওই নেতারা বলছেন ঐক্যবদ্ধতা সম্ভব নয়। আসলে ওই নেতারা লড়াই করছেন পরের ভোটের জন্য আর আমরা লড়ছি পরবর্তী প্রজন্মের জন্য। এটাই হচ্ছে একজন রাজা ও একজন নেতার মধ্যে ফারাক। এর সঙ্গেই আবেগভরা গলায় তিনি বলেন আমি আপনাদের ভালোবাসা আর আশীর্বাদ চাই। আমি কোনও পদ, টাকাপয়সা কিচ্ছু চাই না। বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ওই লোকগুলো টাকা, মুখ্যমন্ত্রীর পদ, এমপি সব কিছুর লোভ দেখিয়েছে। আমি অসুস্থ। আমি চিরদিন থাকব না। এটা আপনাদের জন্য় আমার শেষ লড়াই। যখন আমি মারা যাব তখন মানুষ বলবেন, প্রদ্যোত কিশোর মানিক্য তাঁর জাতির জন্য লড়াই করেছিলেন। তিনি বাঙালি, মণিপুরী, বৌদ্ধধর্মাবলম্বী, ক্রিষ্টান, তিপ্রা মোথা, বিজেপির জোটসঙ্গী আইপিএফটি সকলকে একতাবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, হয় একজোট হোন না হলে রাজ্যটা শেষ হয়ে যাবে।

তাঁর মতে সাংবিধানিক সমাধানের জন্য এটাই শেষ লড়াই। তিনি বলেন, কিছুদিন আগে জেপি নাড্ডাজী এখানে মিটিং করেছিলেন। মানুষ আসেননি। আর আমাদের সমর্থকরা আজ বাইকে চেপেও এসেছেন মিটিংয়ে। তিনি বলেন সিপিএম আর কংগ্রেসের লোকজন মার খাচ্ছে। কিন্তু বিজেপি আমাদের যোদ্ধাদের গায়ে হাত দিতে পারে না। আমরা বাইক বাহিনীতে চ্যালেঞ্জ করেছি।জানিয়েছেন TIPRA Motha পার্টির প্রধান প্রদ্য়োৎ কিশোর মানিক্য।

 

বন্ধ করুন