বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সৌদিতে নিষিদ্ধ হচ্ছে তবলিগি জামাত, ফের বিবেচনা করুন, ভুল বার্তা যাচ্ছে,উঠছে দাবি
প্রার্থনা করছেন মুসলিম ধর্মাবলম্বীরা।( REUTERS) (REUTERS)

সৌদিতে নিষিদ্ধ হচ্ছে তবলিগি জামাত, ফের বিবেচনা করুন, ভুল বার্তা যাচ্ছে,উঠছে দাবি

  • সমীরুদ্দিন কোয়াসমি ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, তবলিগি জামাতের সঙ্গে সন্ত্রাসের কোনও যোগ নেই। মনে হচ্ছে সৌদি সরকারকে কেউ ভুল পথে চালিত করছে।

সৌদি আরবে তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার বিরোধিতা করে এবার মুখ খুললেন দারুল উলুমের প্রধান মৌলানা আব্দুল কাসিম নোমানি। এভাবে তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ করা কতটা যৌক্তিকতা রয়েছে তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। পাশাপাশি গোটা বিষয়টি আরও একবার বিবেচনা করার জন্য তিনি সৌদি সরকারের কাছে আবেদন করেছেন। তাঁর দাবি এভাবে তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলে মুসলিম সমাজের কাছে ভুল বার্তা চলে যেতে পারে। এভাবেই সৌদি সরকারকে সতর্ক করা হয়েছে দারুল উলুমের তরফে।

এদিকে সম্প্রতি তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার ব্যাপারে ঘোষণা করেছে সৌদি সরকার। পাশাপাশি তবলিগি জামাতের সঙ্গে জঙ্গি যোগের আশঙ্কাও প্রকাশ করা হয়েছে। এদিকে সৌদি আরবের এই সিদ্ধান্তকে ঘিরে বিভিন্ন মহলেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। অনেকেই দাবি করতে শুরু করেছেন তবলিগি জামাত যে কোনও ধরনের উগ্রপন্থার বিরুদ্ধেই এতদিন কথা বলেছে। সেক্ষেত্রে সেই সংগঠনকে নিষিদ্ধ করার কোনও যুক্তি থাকতে পারে না। 

এমনকী ওই সংগঠনের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের যোগ থাকার অভিযোগকে ঘিরেও নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে এই প্রথম দারুল উলুম দেওবান্দের তরফে সৌদি সরকারের প্রকাশ্যে সমালোচনা করা হচ্ছে। এদিকে মুসলিম অ্য়াক্টিভিস্ট জাফর সরেশওয়ালা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ করা নিয়ে আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি। তালিবানরাও তবলিগির বিরোধিতা করে। জেহাদি আন্দোলনের বিরোধিতা করে তবলিগি জামাত। তারপরেও কেন এই সিদ্ধান্ত? 

এদিকে তবলিগি জামাতের মুখপাত্র সমীরুদ্দিন কোয়াসমি ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, তবলিগি জামাতের সঙ্গে সন্ত্রাসের কোনও যোগ নেই। মনে হচ্ছে সৌদি সরকারকে কেউ ভুল পথে চালিত করছে।

 

বন্ধ করুন