বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > DGCA: বিমান বাতিল অথবা দেরি হলে যাত্রীদের দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, ফোন নম্বর ঠিক দিন
বিমান বাতিল বা বিমানের দেরি নিয়ে এবার আরও কড়া হচ্ছে ডিজিসিএ। (REUTERS) (REUTERS)
বিমান বাতিল বা বিমানের দেরি নিয়ে এবার আরও কড়া হচ্ছে ডিজিসিএ। (REUTERS) (REUTERS)

DGCA: বিমান বাতিল অথবা দেরি হলে যাত্রীদের দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, ফোন নম্বর ঠিক দিন

  • ডিজিসিএ জানিয়েছে, যদি দু সপ্তাহের পরে অথবা যাত্রা শুরুর ২৪ ঘণ্টা আগে বিমান বাতিলের খবর যাত্রীদের জানানো হলে সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থাকে বিকল্প বিমানের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। অথবা টিকিটের দাম ফেরৎ দিতে হবে যেটা যাত্রীদের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে।

নেহা এলএম ত্রিপাঠি

ফ্লাইট বাতিল বা ফ্লাইট দেরিতে ছাড়ার অভিজ্ঞতা আছে অনেকেরই। তবে এবার এনিয়ে কড়া হচ্ছে DGCA। শুক্রবার ডিজিসিএর তরফে জানানো হয়েছে, উড়ান বাতিল অথবা দেরি হয়ে গেলে যাত্রীদের প্রয়োজনীয় সুবিধা দিতে হবে। এমনকী তাদের বোর্ডিং করতে না দিলে তাদের ক্ষতিপূরণেরও ব্যবস্থা রাখতে হবে। 

ডিজিসিএর তরফে জানানো হয়েছে, একাধিক বিমান সংস্থার ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যাত্রীরা কনফার্মড টিকিট নিয়ে আসার পরেও তাদের বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি। এই ধরণের কাজ একেবারেই ঠিক নয়। এতে এভিয়েশান ইন্ডাস্ট্রিতে একটা বদনাম হয়। এক্ষেত্রে ডিজিসিএ জানিয়ে দিয়েছে,নূন্যতম ক্ষতিপূরণ বা প্রয়োজনীয় ফেসিলিটি যাত্রীদের দিতে হবে। যখন এই ধরনের ফ্লাইটে উঠতে না দেওয়া বা ফ্লাইটে দেরির মতো ঘটনা হয়।

এই নির্দেশ না মানলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে আর্থিক জরিমানাও করা হতে পারে ওই বিমান সংস্থাকে। অন্যদিকে কোনও বিমান বাতিল হলে যাত্রীকে অন্তত দু সপ্তাহ আগে জানাতে হবে। যাত্রীর সম্মতি রয়েছে এমন বিকল্প ফ্লাইটের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। 

ডিজিসিএ জানিয়েছে, যদি দু সপ্তাহের পরে অথবা যাত্রা শুরুর ২৪ ঘণ্টা আগে বিমান বাতিলের খবর যাত্রীদের জানানো হলে সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থাকে বিকল্প বিমানের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। অথবা টিকিটের দাম ফেরৎ দিতে হবে যেটা যাত্রীদের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে। অন্যদিকে আগের ফ্লাইট বাতিল বা দেরির কারণে কানেক্টিং ফ্লাইট কোনও যাত্রী মিস করলে তার জন্যও বিকল্প টিকিট বা ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে।তবে যে যাত্রীরা সঠিক নম্বর ও ইমেল দেবে না তাদের জন্য ক্ষতিপূরণ দেবে না বিমান সংস্থা।

বন্ধ করুন