কুণাল কামরা ও অর্ণব গোস্বামী
কুণাল কামরা ও অর্ণব গোস্বামী

আমাকে না বলে কুণাল কামরার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হল, উষ্মা প্রকাশ ইন্ডিগো পাইলটের

কুণাল বিশৃঙ্খলতা করেনি বলেই মনে করেন বিমানচালক।

চলন্ত বিমানে অর্ণব গোস্বামীর সঙ্গ অভব্য ব্যবহার করে নিরাপত্তার বিধিনিষেধ ভঙ্গ করেছেন কুণাল কামরা, এই অভিযোগে তাঁকে নো ফ্লাইং লিস্টে পাঠিয়ে দিয়েছে ইন্ডিগো সহ চার বিমান সংস্থা। সেদিন মুম্বই থেকে লখনউতে ইন্ডিগোর বিমান চড়ে গিয়েছিলেন অর্ণব ও কুণাল। কিন্তু কমেডিয়ানের বিরুদ্ধে নেওয়া ব্যবস্থার বিরুদ্ধে এবার মুখ খুললেন সেই বিমানের মুখ্য পাইলট।

ইন্ডিগোকে চিঠি লিখেছেন পাইলট। সেখানে পাইলটের প্রশ্ন যে তাঁকে না জিজ্ঞেস করে কেন বিমান সংস্থা কুণাল কামরার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল। এটায় তিনি হতাশ বলেও জানিয়েছেন বিমানচালক। শুধু সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট দেখেই বিমানসংস্থা সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে পাইলটের অভিযোগ।

পাইলটের মতে কুণালের ব্যবহার অশোভন হলেও তিনি বিশৃঙ্খলতা করেননি। এর থেকেও অনেক খারাপ ব্যবহার তিনি দেখেছেন, কিন্তু সেখানে যাত্রীকে ভবিষ্যতে বিমান চড়া থেকে মানা করা হয়নি বলেই পাইলট তাঁর চিঠিতে লিখেছেন।

প্রসঙ্গত ২৮ জানুয়ারি অর্ণবকে বিমানে নানান প্রশ্ন করেন কুণাল। কিন্তু পুরো সময় তাঁকে উপেক্ষা করেন টিভি সঞ্চালক। পরে নিজেই টুইটারে এটি পোস্ট করে কুণাল বলেন যে তিনি তাঁর হিরো রোহিত ভেমুলার জন্য এই কাজটি করেছেন। এরপরে অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ পুরী বলেন যে আইন ভেঙেছেন কুণাল ও তাঁকে বিমানে চড়া থেকে বিরত করা উচিত। এরপরেই নড়েচড়ে বসে বিমানসংস্থাগুলি। ইন্ডিগো, এয়ার ইন্ডিয়া, স্পাইসজেট ও গো এয়ার ব্যান করে দেয় কুণাল কামরাকে। এই সিদ্ধান্ত সঠিক বলে জানায় বিমান নিয়ামক সংস্থা ডিজিসিএ। কিন্তু এবার পাইলট নিজেই বলছেন যে কুণালকে ব্যান করার প্রয়োজন নেই। ইন্ডিগো জানিয়েছে যে তারা বিমানচালকের চিঠি পেয়েছে ও অভন্ত্যরীণ কমিটি এটি নিয়ে বিচার বিবেচনা করবে।


বন্ধ করুন