বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস, জানুন আপনার তথ্য সুরক্ষিত কিনা
ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)
ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)

ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস, জানুন আপনার তথ্য সুরক্ষিত কিনা

  • ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে জানা যায় কয়েকদিন আগেই। তবে সংস্থার তরফে দাবি করা হল, গ্রাহকদের 'ফিন্যানশিয়াল ডেটা' নিরাপদ রয়েছে।

ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে জানা যায় কয়েকদিন আগেই। তবে এবার সংস্থার তরফে দাবি করা হল, গ্রাহকদের 'ফিন্যানশিয়াল তথ্য' নিরাপদ রয়েছে। এর আগে ২১ মে ইন্টারনেট সুরক্ষা সংক্রান্ত গবেষক রাজশেখর রাজাহারিয়া টুইট করে জানিয়েছিলেন যে ডমিনোজের ১৮ কোটি গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যায়। পাশাপাশি তিনি একটি টুইট করে একটি লিঙ্ক দেন, যেখানে গিয়ে আপনি দেখে নিতে পারবেন যে আপনার তথ্য সুরক্ষিত রয়েছে নাকি তা ফঁস হয়েছে।

টুইট বার্তায় রাজশেখর রাজাহারিয়া লিখেছিলেন, 'আবার!! ডমিনোজ ইন্ডিয়ার ১৮ কোটি অর্ডারের তথ্য পাবলিক হয়ে গিয়েছে। ডার্ক ওয়েবে একটি সার্চ ইঞ্জিন তৈরি করেছে হ্যাকাররা। যদি আপনি অনলাইনে ডমিনোজ ইন্ডিয়াতে অর্ডার দিয়ে থাকেন, তাহলে হয়ত আপনার তথ্যও ফাঁস হয়ে গিয়েছে। ব্যক্তিগত তথ্য যেমন, নাম, ইমেল, মোবাইল, জিপিএস, লোকেশন, ইত্যাদি ফাঁস হয়ে গিয়েছে।'

এরপরই ডমিনোজের মালিকানাধীন সংস্থা জুবিলেন্ট ফুডওয়ার্কস ঘটনাটির সত্যতা স্বীকার করে নেয়। তবে তারা দাবি করে, গ্রাহকতে ফিন্যানশিয়াল ডেটার নাগাল হ্যাকাররা পায়নি। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এই বিষয়ে সংস্থার তরফে বলা হয়, 'জুবিলেন্ট ফুডওয়ার্কস সম্প্রতি তথ্য সুরক্ষার ক্ষেত্রে একটি সমস্যার সম্মুখীন হয়। তবে ফিন্যানশিয়াল কোনও তথ্য এই ঘটনায় ফাঁস হয়নি। এর জেরে ব্যবসার উপর কোনও প্রভাবই পড়বে না।'

জুবিলেন্ট ফুডওয়ার্কসের করফে জানানো হয়, আমাদের নীতি অনুযায়ী আমরা গ্রাহকদের ফিন্যানশিয়াল ডেটা বা কার্ডের তথ্য সেভ করে রাখি না। তাই গ্রাহকদের এহেন কোনও তথ্যই ফাঁস হয়নি। আমাদের বিশেষজ্ঞ দল এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে। আমরা এই ঘটনার প্রভাব সীমিত রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিচ্ছি।

আপনার তথ্য ফাঁস হয়েছে কিনা, তা জানতে টুইটে দেওয়া লিঙ্কে যান :

এদিকে এই বিষয়ে রাজশেখর রাজাহারিয়ার দাবি, প্রতিদিনই বিভিন্ন সংস্থার থেকে তথ্য চুরি হচ্ছে। কিন্তু কোনও সংস্থাই তাদের গ্রাহকদের এই বিষয়ে অবগত করছে না। এটা জানা আপনাদের অধিকারের মধ্যে পড়ে যে আপনার তথ্য ফাঁস হয়েছে কি না। তিনি আরও দাবি করেন, হ্যাকাররা চুরি করা তথ্য দিয়ে একটি সার্চ ইঞ্জিন তৈরি করেছে। আপনার তথ্য ফাঁস হয়েছে কি না, তা আপনি জানতে পারবেন একটি লিঙ্কে গিয়ে। সেই লিঙ্কটি টুইট করেন রাজশেখর রাজাহারিয়া।

বন্ধ করুন