বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লখিমপুরে মৃত বিজেপি কর্মীদের ‘হত্যা’ মোটেও ‘অপরাধ’ নয়, দাবি কৃষক নেতা তিকাইতের
রাকেশ তিকাইত। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
রাকেশ তিকাইত। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

লখিমপুরে মৃত বিজেপি কর্মীদের ‘হত্যা’ মোটেও ‘অপরাধ’ নয়, দাবি কৃষক নেতা তিকাইতের

তাঁর যুক্তি, বিক্ষোভকারীদের পিষে দেওয়ার ঘটনার স্রেফ প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

লখিমপুর খিরিতে মৃত দুই বিজেপি কর্মীর হত্যাকে ‘অপরাধ’ বিবেচনা করছেন না। অথবা যাঁরা খুন করেছেন, ‘অপরাধী’ হিসেবেও দেখছেন না তাঁদের। এমনটাই জানালেন ভারতীয় কিষান ইউনিয়নের (বিকেইউ) মুখপাত্র রাকেশ তিকাইত। তাঁর যুক্তি, বিক্ষোভকারীদের পিষে দেওয়ার ঘটনার স্রেফ প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

গত ৩ অক্টোবর উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খিরিতে গাড়ির তলায় পিষে মৃত্যু হয় চার কৃষকের। মৃত্যু হয় দুই বিজেপি কর্মী, একজন সাংবাদিক এবং এক চালকের। অভিযোগ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনির ছেলে আশিস সেই গাড়িতে ছিলেন। সেই অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তারইমধ্যে শনিবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে তিকাইতের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই বলেছে, ‘লখিমপুর খিরিতে চার কৃষককে গাড়ির কনভয় পিষে দেওয়ার পর দুই বিজেপি কর্মীকে খুনের ঘটনা হল ক্রিয়ার প্রতিক্রিয়া। সেই খুনে যাঁরা জড়িতে আছেন, তাঁদের আমি অপরাধী বলে মনে করি না।’

সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টেনি এবং তাঁর ছেলে আশিসকে গ্রেফতারির দাবি তুলেছেন তিকাইত। লখিমপুর খিরির ঘটনাকে ‘পূর্ব-পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। সংযুক্ত কিষান মোর্চার নেতা যোগেন্দ্র যাদব বলেন, ‘অজয় মিশ্রকে কেন্দ্রীয় সরকার থেকে সরিয়ে দেওয়া উচিত। কারণ তিনিই ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন এবং অপরাধীদের রক্ষা করছেন।’

তারইমধ্যে শনিবার পুলিশের সামনে হাজিরা দেন আশিস। আগেই তাঁর আইনজীবী অবধেশ কুমার বলেছিলেন, 'আমরা পুলিশের নোটিশকে সম্মান করি এবং তদন্তে সহযোগিতা করব। আজ পুলিশের সামনে হাজির হবেন আশিষ।'  শুক্রবারই পুলিশের সামনে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল আশিসের। তবে সময়মতো পুলিশের সামনে হাজিরা দেননি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে।

বন্ধ করুন