DRDO-র প্রকাশ করা মহাকাশচারীদের খাবারের ছবি
DRDO-র প্রকাশ করা মহাকাশচারীদের খাবারের ছবি

মহাকাশে মুগ ডালের হালুয়া খাবেন নভশ্চররা, দেখুন গগনযান মিশনের খাবারের তালিকা

৭ দিনের মহাকাশযাত্রায় মহাকাশচারীরা কী খাবেন তা প্রকাশ্যে আনল ডিআরডিও।

সম্ভবত আগামী বছরই মহাকাশে মানুষ পাঠাবে ভারত। গগনযান নামে এই অভিযান সফল হবে বিশ্বের পঞ্চম দেশ হিসাবে এই কৃতিত্ব অর্জন করবে আমাদের দেশ। সেজন্য জোরদার প্রস্তুতি চালাচ্ছে ইসরো-সহ অভিযানের সঙ্গে সম্পৃক্ত সমস্ত সংস্থা। ইতিমধ্যে বাছাই করা হয়েছে বায়ুসেনার ৪ পাইলটকে। এদের মধ্যেই ৩ জন যাবেন মহাকাশে। চলতি মাসেই রাশিয়ায় শুরু হবে মহাকাশচারীদের প্রশিক্ষণ। এসবের মধ্যেই ৭ দিনের মহাকাশযাত্রায় মহাকাশচারীরা কী খাবেন তা প্রকাশ্যে আনল ডিআরডিও।



সংবাদসংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ডিআরডিও-র মাইসুরুর গবেষণাগারে তৈরি করা হয়েছে এই খাবারগুলি। খাবারের সঙ্গে মহাকাশচারীদের কাছে থাকবে খাবার গরম করার একটি যন্ত্র।

ডিআরডিওর প্রকাশ করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে আকাশযাত্রীদের পদের তালিকায় রয়েছে ইন্সট্যান্ট ইডলি, ইন্সট্যান্ট উপমা, নিরামিষ পোলাও, এগ রোল, ভেজিটেবল রোল, মুগ ডালের হালুয়া।



এছাড়া মহাকাশযাত্রীদের জল খাওয়ার ব্যবস্থা করতে বিশেষ ধরনের পাউচ বানিয়েছে DRDO. মহাকাশে অভিকর্ষ কাজ না করায় বোতল বা গ্লাস থেকে জল খাওয়া সম্ভব নয়। তাছাড়া কোনও কারণে কোনও পাত্র থেকে জল বেরিয়ে এলেকে তা শূন্যে গ্যাস বেলুনের মতো ভাসতে থাকে। সেই জল কোনও বৈদ্যুতিন যন্ত্রে গিয়ে লাগলে তা বিগড়ে যেতে পারে। তাই পাউচের মতো জলের পাত্রের ব্যবস্থা করেছে ডিআরডিও। পাত্রের মুখে লাগানো রয়েছে একটি ট্যাপ। ট্যাপ খুলে পাউচে চাপ দিলেই মুখে পৌঁছবে জল। তাছাড়া ট্যাপের সামনে লাগানো ছোট্ট পাইপ চুষেও খাওয়া যাবে জল।

খাবার ছাড়াও মহাকাশচারীদের দেওয়া হবে একটি ফুড হিটার। মহাকাশের জমাট ঠান্ডায় খাবার বা জল জমে বরফ হয়ে যেতে পারে। তখন কাজে আসবে এই হিটার।

বন্ধ করুন