বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে ধরা পড়ল ড্রোন, তীব্র প্রতিবাদ ভারতের
ইসালামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে ধরা পড়ল ড্রোন, তীব্র প্রতিবাদ ভারতের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
ইসালামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে ধরা পড়ল ড্রোন, তীব্র প্রতিবাদ ভারতের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে ধরা পড়ল ড্রোন, তীব্র প্রতিবাদ ভারতের

  • গত সপ্তাহে জম্মু বিমানবন্দরের বায়ুসেনার স্টেশনে জঙ্গি হামলার পর থেকে পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় একাধিক ড্রোন উড়তে দেখা গিয়েছে।

ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে ধরা পড়ল একটি ড্রোন। হাইকমিশনের মতো কড়া সুরক্ষাবেষ্টিত এলাকায় নিরাপত্তার গাফিলতি নিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। 

নাম গোপন রাখার শর্তে কয়েকজন আধিকারিক জানিয়েছেন, হাইকমিশনের একটি অনুষ্ঠান চলছিল। সেই সময় হাইকমিশনের কমপ্লেক্সের মধ্যে ড্রোনটি দেখা যায়। সেই ঘটনায় ‘নিরাপত্তা ভঙ্গ’ হয়েছে বলে সাফ জানিয়েছে ভারত। সেইসঙ্গে স্বাক্ষরহীন কূটনৈতিক সরকারিভাবে চিঠিপত্রের মাধ্যমে অভিযোগও দায়ের করেছে নয়াদিল্লি। এমনিতে ইসলামাবাদের কূটনৈতিক 'দুর্গ'-এর মধ্যে ভারতীয় হাইকমিশন অবস্থিত। যে কূটনৈতিক এনক্লেভকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে রাখে পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী। ভারতের হাইকমিশনের কাছেও একপ্রস্থ নিরাপত্তার বলয় আছে। হাইকমিশনের সামনে দিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা গিয়েছে, যা পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের কার্যালয়ের সামনে দিয়ে গিয়েছে। 

এমনিতেই গত সপ্তাহে জম্মু বিমানবন্দরের বায়ুসেনার স্টেশনে জঙ্গি হামলার পর থেকে পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় একাধিক ড্রোন উড়তে দেখা গিয়েছে। জম্মুর হামলার পর আধিকারিকরা জানান, জম্মু বিমানবন্দরের বায়ুসেনার স্টেশনে দুটি বিস্ফোরক-বোঝাই ড্রোন আছড়ে পড়ে। পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে দুটি বিস্ফোরণ হয়। যা ভিভিআইপি এবং সশস্ত্র বাহিনীর কৌশলগত অভিযানের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। পরে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিং জানান, জঙ্গি হামলা চালানো হয়েছিল বায়ুসেনার স্টেশনে। তারইমধ্যে শুক্রবার ভোরের দিকে জম্মুর আরনিয়া সেক্টরে আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাকিস্তানের একটি কোয়াডকপ্টার (চার পা-বিশিষ্ট ড্রোন) দেখতে পান বিএসএফের জওয়ানরা। যা ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছিল। এক গোয়েন্দা আধিকারিক জানিয়েছেন, জাবোয়াল আউটপোস্ট লাগোয়া আন্তর্জাতিক সীমান্তের কাছে ভোর চারটে নাগাদ সেই কোয়াডকপ্টার দেখা যায়। ‘এলাকার নজরদারির’ তথা গুপ্তচরবৃত্তির জন্য ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢোকার চেষ্টা করছিল। সেটিকে নামানোর জন্য বিএসএফ জওয়ানরা ছ'রাউন্ড গুলি চালান। তারপর পিছু হটে যায় কোয়াডকপ্টার।

বন্ধ করুন