মুম্বইয়ের ফ্ল্যাট সহ চন্দা কোচরের ৭৮ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট, ইডি। আইসিআইসিআই ব্যাংকের প্রাক্তন সিইওর বিরুদ্ধে টাকা তছরুপের অভিযোগ আছে। পিএমএলএ আইনের ধারায় এই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

চন্দা কোচর ও তাঁর স্বামী দীপক কোচরের বাজেয়াপ্ত সম্পত্তির খাতায় কলমে দাম ৭৮ কোটি বললেও বাজার দর প্রায় ৬০০ কোটির কাছাকাছি বলে অফিসারদের আন্দাজ। শুধু বাড়ি ও জমি নয়, তামিলনাড়ু ও মহারাষ্ট্রে থাকা ফ্যাক্টরি ও সম্পর্কিত যন্ত্রপাতিও বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি।

গত বছরর জানুয়ারিতে কোচরদের বিরুদ্ধে আর্থিক গোলযোগের অভিযোগ আনে তদন্তকারী সংস্থা। ভিডিওকনকে বেআইনি ভাবে ১৮৭৫ কোটি টাকা লোন দেওয়ার অভিযোগ ওঠে কোচরের বিরুদ্ধে।ইডি তদন্তে উঠে এসেছে যে লোনের টাকার একাংশ ভিডিওকন পরের দিনেই একটি সংস্থাকে পাঠিয়ে দেয় যার মালিক ছিলেন দীপক কোচর। যেই বাড়িতে বর্তমানে কোচররা থাকেন, সেটাও ভিডিওকনের থেকে নামমাত্র দামে তাঁরা কিনেছেন বলে ইডির দাবি। ইতিমধ্যেই বহুবার চন্দা ও দীপক কোচরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ইডি। তদন্ত এখনও চলছে। তার মধ্যেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিল ইডি।



বন্ধ করুন