বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভোটের আগে মোট ৬৭৬ কোটি টাকার নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়েছে! জানাল SBI

ভোটের আগে মোট ৬৭৬ কোটি টাকার নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়েছে! জানাল SBI

ফাইল ছবি: রয়টার্স (Reuters)

এই সংক্রান্ত আরটিআই-এর উত্তরে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, 'মোট ৯৫৪টি নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়েছিল। এর মধ্যে ১ কোটি টাকার ৬৬৬টি, ১০ লক্ষ টাকার ৮৮টি, ১ লক্ষ টাকার ১৪৩টি, ১০ হাজার টাকা দামের ২৭টি এবং ১ হাজার টাকার ৩০টি বন্ড বিক্রি হয়েছে।

বিতর্কিত ২৩ তম দফায় ৬৭৬ কোটি টাকার নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়েছিল। দুই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে অতিরিক্ত ১৫ দিনের জন্য বন্ড বিক্রির অনুমতি দিয়েছিল সরকার। রীতিমতো আইন সংশোধন করার পরেই তা কার্যকর হয়। এক সাম্প্রতিক RTI-তে এই তথ্য উঠে এসেছে।

এই সংক্রান্ত আরটিআই-এর উত্তরে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, 'মোট ৯৫৪টি নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়েছিল। এর মধ্যে ১ কোটি টাকার ৬৬৬টি, ১০ লক্ষ টাকার ৮৮টি, ১ লক্ষ টাকার ১৪৩টি, ১০ হাজার টাকা দামের ২৭টি এবং ১ হাজার টাকার ৩০টি বন্ড বিক্রি হয়েছে।  আরও পড়ুন: নির্বাচনী বন্ডের মেয়াদ ১৫ দিন বাড়ানো কি ঠিক? মঙ্গলবার শুনানি সুপ্রিম কোর্টে

অর্থনৈতিক বিষয়ক দফতর গত ৭ নভেম্বর নির্বাচনী বন্ড স্কিম-এ এই সংশোধন করে। তাতে বিধানসভা-সহ রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিধানসভার সাধারণ নির্বাচনের বছরে আরও অতিরিক্ত ১৫ দিনের জন্য নির্বাচনী বন্ড বিক্রিতে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।

হিমাচল প্রদেশ (১২ নভেম্বর) এবং গুজরাটের (১ ও ৫ ডিসেম্বর) বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগে এই সংশোধন করা হয়। আর তাই নিয়েই তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। এরপর বৃহস্পতিবার নির্বাচনের ফলাফলও ঘোষণা করা হয়। তারপরেই বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল এবং সমাজকর্মী এর প্রতিবাদে সরব হয়েছেন।

এর আগে, লোকসভার সাধারণ নির্বাচনের বছরে কেন্দ্রীয় সরকার কেবলমাত্র ৩০ দিনের অতিরিক্ত সময়ের অনুমতি দিয়েছিল।

১ থেকে ১০ অক্টোবরের মধ্যে, ২২তম পর্বে ৫৪৫.২৫ কোটি টাকার নির্বাচনী বন্ড বিক্রি হয়ে। সবচেয়ে বেশি অনুদান পায় ভারতীয় জনতা পার্টি (BJP)।

এরপর ফের সরকারের অনুমোদন মেলায় ৯ নভেম্বর থেকে ২৩তম পর্বের বন্ড বিক্রি শুরু হয়। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত তা চলে। স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এই বন্ড বিক্রির দায়িত্বে ছিল।

নির্বাচনী বন্ড কী?

রাজনৈতিক দলকে অনুদান প্রদানের ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনতে নির্বাচনী বন্ড বিক্রি শুরু করা হয়। ২০১৮ সালের ১ থেকে ১০ মার্চ প্রথমবার নির্বাচনী বন্ড বিক্রি শুরু হয়। সরাসরি নগদ টাকার পরিবর্তে এই বন্ড কিনে দলগুলিকে অনুদান দেওয়া যেতে পারে। বন্ড ইস্যু হওয়ার দিন থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত সেটি বৈধ থাকে। উল্লেখ্য, আগের লোকসভা নির্বাচনে অন্তত ১ শতাংশ ভোট পেয়েছে, এমন রাজনৈতিক দলই বন্ডের মাধ্যমে অনুদান পাওয়ার যোগ্য।

SBI-ই একমাত্র ব্যাঙ্ক যেখানে বন্ড বিক্রি এবং রিডিম করা যায়। তবে অন্যান্য ব্যাঙ্কের গ্রাহকরাও বিভিন্ন পেমেন্ট চ্যানেলের মাধ্যমে বন্ড ক্রয় করতে পারেন। কোনও রাজনৈতিক দল ব্যাঙ্কের কেবলমাত্র ২৯টি অনুমোদিত শাখার একটি থেকেই বন্ড রিডিম করতে পারে। আরও পড়ুন: Why BJP lost Himachal Pradesh Elections: নিজেরাই নিজেদের 'শত্রু', ‘ফেল’ ব্র্যান্ড মোদী - কোন কোন কারণে হিমাচলে হারল BJP?

চলতি বছরের অক্টোবর পর্যন্ত, ২৫টি রাজনৈতিক দল নির্বাচনী বন্ড রিডিম এবং নগদ করার জন্য স্পেসাল কারেন্ট অ্যাকাউন্ট খুলেছে। তবে SBI সেই রাজনৈতিক দলের নামের তালিকা প্রকাশ করেনি।

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

ডিম-ভাতের লোভে ২১ জুলাই ভিড় জমে? ধারণা ভেঙে নচিকেতা কী বললেন? প্রত্যেকের মৃত্যুর তদন্তে কমিশন গঠন! হিংসার মূলে BNP ও জামাত, দাবি হাসিনার ছেলের ধনু, মকর, কুম্ভ, মীনের মধ্যে আজ লাকি কারা? রইল আজকের রাশিফল 11 ওভার শেষে Los Angeles Knight Riders-র স্কোর 68/4 সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিকের মধ্যে আজ শ্রাবণের প্রথম সোমবার কারা লাকি?রইল রাশিফল মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কটের মধ্যে আজ কারা কারা লাকি? দেখে নিন ২২ জুলাইয়ের রাশিফল বশিরের আগুনে বোলিং, দ্বিতীয় টেস্টেও গোহারান হারল উইন্ডিজ, সিরিজ জিতল ইংল্যান্ড সুইডিশ ওপেনের ফাইনালে অনামী নুনোর কাছে স্ট্রেট সেটে হেরে অবসরের ইঙ্গিত নাদালের শোলের সঙ্গে একইদিনে মুক্তি, ৩০ লাখি ছবি জয় সন্তোষী মা ১৯৭৫ সালে কত টাকা আয় করে? দেড় কোটি বেতনের চাকরিতে আমেরিকা গেলেন না বাংলার যুবক, বাবা-মা একলা হয়ে যাবেন

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.