বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Elon Musk Not To Buy Twitter: টুইটার কিনছেন না ইলন মাস্ক! বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলার ‘হুঁশিয়ারি’

Elon Musk Not To Buy Twitter: টুইটার কিনছেন না ইলন মাস্ক! বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলার ‘হুঁশিয়ারি’

টুইটার কিনছেন না ইলন মাস্ক  (AFP)

ইলন মাস্ক জানিয়ে দিলেন যে তিনি টুইটার কিনবেন না। এই আবহে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে বলে জানা গিয়েছে। এই বিষয়ে টুইটারের চেয়ারম্যান ব্রেট টেলর এক বিবৃতি প্রকাশ করেছেন।

স্প্যাম অ্যাকাউন্ট নিয়ে ‘সমস্যা’ ছিলই। এই আবহে এবার আশঙ্কা সত্যি করে ইলন মাস্ক জানিয়ে দিলেন যে তিনি টুইটার কিনবেন না। এই আবহে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে বলে জানা গিয়েছে। এই বিষয়ে টুইটারের চেয়ারম্যান ব্রেট টেলর এক বিবৃতিতে বলেন, ‘টুইটারের বোর্ড মাস্কের সঙ্গে সম্মত হওয়া মূল্য এবং শর্তাবলীর উপর লেনদেন করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। চুক্তি কার্যকর করার জন্য আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা করছে বোর্ড। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে আমরা ডেলাওয়্যার কোর্ট অফ চ্যান্সারিতে জয়ী হব।’

এর আগে ইলন মাস্ক বলেছিলেন, স্প্যাম অ্যাকাউন্ট কত আছে? তা যাচাই করে নথি না পাওয়া পর্যন্ত টুইটার কেনার চুক্তি স্থগিত রাখাবেন তিনি। টেসলার কর্ণধার এই নিয়ে টুইট করে লিখেছিলেন, ‘স্প্যাম বা ভুয়ো অ্যাকাউন্টের সংখ্যা সত্যিই টুইটারের মোট ব্যবহারকারীর পাঁচ শতাংশের কম, তা গণনার স্বপক্ষে নথি না পাওয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে টুইটার কেনার চুক্তি স্থগিত রাখা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, এপ্রিল মাসেই ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দেন টেসলার কর্ণধার। যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩৩,৬৭২ কোটি টাকা। এর আগে মাসের শুরুতেই টুইটারের ৯.২ শতাংশ মালিকানা কেনেন ইলন। টুইটারের বোর্ডেও ইলন যোগ দেবেন বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু দিনকয়েক পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছিলেন ইলন। তারপর শেয়ারপিছু ৫৪.২ ডলারে টুইটার কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন টেসলার কর্ণধার। তিনি দাবি করেছিলেন, টুইটারে বাকস্বাধীনতার প্রসার ঘটাতে চান এবং সংস্থাকে ব্যক্তিগত মালিকানার আওতায় আনতে চান। যদিও প্রাথমিকভাবে ইলনের প্রস্তাবে রাজি ছিল না টুইটার। পরে অবশ্য টুইটারের শেয়ারহোল্ডারদের স্বার্থে এই চুক্তিতে সম্মত হয় সংস্থা। তবে এবার ইলন মাস্ক নিজেই পিছিয়ে এলেন এই চুক্তি থেকে।

বন্ধ করুন