বাবুঘাটে বিক্রি হচ্ছে ফুড প্যাকেট
বাবুঘাটে বিক্রি হচ্ছে ফুড প্যাকেট

কালোবাজারি রুখুন, অত্যাবশ্যক সামগ্রী যেন মজুত থাকে- রাজ্যদের চিঠি কেন্দ্রের

সব রাজ্যকে চিঠি লিখলেন স্বরাষ্ট্রসচিব।

করোনার প্রকোপ রুখতে লকডাউন চলছে দেশে। কিন্তু ছাড় আছে অত্যাবশ্যক সামগ্রী ও জরুরি পরিষেবায়। এবার প্রতিটি রাজ্যে মানুষ যেন সহজেই অত্যাবশ্যক সামগ্রী পান, তার জন্য রাজ্যদের চিঠি লিখল কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় কুমার ভাল্লা সব রাজ্যের মুখ্যসচিবদের চিঠি লিখেছেন ও তাদের Essential Commodities Act 1955-এর ধারা মোতাবেক ব্যবস্থা নিতে বলেছেন। ভাল্লা জানিয়েছেন যে কেন্দ্র খাদ্য, ওষুধের ক্ষেত্রে উত্পাদন ও পরিবহনের ওপর ছাড় দিয়েছে। এখনই অত্যাবশ্যক সামগ্রী আইনের ধারা মোতাবেক দাম নিয়ন্ত্রণ, স্টকের ঊর্ধ্বসীমা নির্ধারণ, প্রোডাকশন বৃদ্ধি, ডিলারদের গুদাম পরীক্ষা করা যেতে পারে।

আইন ভঙ্গকারীদের সাত বছরের জেল, জরিমানা বা উভয় হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রসচিব। একই সঙ্গে শ্রমিকদের অভাবে উত্পাদন কমার খবর পাওয়া যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এই পরিস্থিতিতে ব্ল্যাকমার্কেটিংয়ের একটা পরিস্থিতি হতে পারে বলেও উদ্বিগ্ন কেন্দ্র। এর ফলে দাম বাড়তে পারে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর। কালোবাজারি রুখতে তাই আগেভাগে রাজ্যদের সতর্ক হতে বলেছে কেন্দ্র।

চলতি মাসের ১৪ তারিখ অবধি দেশে লকডাউন চলবে। তবে এই মেয়াদকাল বাড়ার সম্ভাবনা আছে কারণ অনেক রাজ্যেই আরও কিছুদিন বিধিনিষেধ বৃদ্ধি করার পক্ষপাতী। বর্তমানে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত ১৪৯।




বন্ধ করুন