বাড়ি > ঘরে বাইরে > আগামী অর্থবর্ষে কমছে প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদের হার
আগামী অর্থবর্ষে সুদের হার কমাচ্ছে ইপিএফও।
আগামী অর্থবর্ষে সুদের হার কমাচ্ছে ইপিএফও।

আগামী অর্থবর্ষে কমছে প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদের হার

  • সদস্যদের জন্য ১৫-২৫ বেসিস পয়েন্ট কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইপিএফও।
  • আর্থিক মন্দার জেরে সরকারি বন্ড ও ফিক্সড ডিপোজিটের সুদের হারও কমেছে।
  • বাজারের যা পরিস্থিতি, তাতে সদস্যদের আগামী অর্থবর্ষে ৮.৬৫% সুদ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই ইপিএফও-এর।

আগামী অর্থবর্ষে প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদের হার কমতে চলেছে। জানা গিয়েছে, সদস্যদের জন্য ১৫-২৫ বেসিস পয়েন্ট কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইপিএফও।

চলতি জানুয়ারি মাসের শেষেই ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের জন্য প্রভিডেন্ট ফান্ডের নতুন সুদের হার ঘোষণা করতে চলেছে ইপিএফ। কিছু দিন আগে ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে সদস্যদের প্রাপ্য সুদের হার বাড়িয়ে ৮.৬৫% করে ইপিএফও। সেই প্রস্তাবে অর্থ মন্ত্রকের সায় পেতে লেগে যায় ৭ মাস।

এর আগে আর্থিক মন্দার জেরে সরকারি বন্ড ও ফিক্সড ডিপোজিটের সুদের হারও কমেছে। তার প্রভাবই দেখা দিতে চলেছে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড ও সরকারি প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুদের হারে।

এ ছাড়া বাজারে সুদের হারে ১০০ বেসিস পয়েন্ট পতনের জেরেও ৫০-৭০ ইপিএফ বেসিস পয়েন্ট কমার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বাজারের যা পরিস্থিতি, তাতে সদস্যদের আগামী অর্থবর্ষে ৮.৬৫% সুদ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই ইপিএফও-এর।

তার উপর ঋণ খাতে ৮৫% এবে শেয়ারবাজারে ১৫% লগে্নি করার সিদ্ধান্ত নিয়ে যথেষ্ট বেকায়দায় পড়েছে সংস্থা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংস্থার এক কর্তা জানিয়েছেন, ‘এই কারণে, আগামী অর্থবর্ষে ইপিএফ-এর সুদের হারে ১৫-২৫ বেসিস পয়েন্ট কমার সম্ভাবনা রয়েছে।’

শ্রম মন্ত্রকের অধীনস্থ কেন্দ্রীয় বোর্ড বা সিবিটি-তে কর্মী সদস্যদের প্রতিনিধিরা অবশ্য জানিয়েছেন, আগামী অর্থবর্ষেও প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদের হার ৮.৬৫% থেকে না কমানোর জন্য ইপিএফও-কে চাপে রাখা হবে। তার পাশি, আগামী অর্থবর্ষে বাজার পরিস্থিতি যে যথেষ্ট কঠিন হতে চলেছে, সে কথাও স্বীকার করেছেন ওই প্রতিনিধিরা।

এই বিষয়ে কোনও রকম প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের মুখপাত্র।

বন্ধ করুন