বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘পা কাঁপছিল’ মন্ত্রীর, অবস্থানে অনড় পাক সাংসদ, আরও ‘গোপন তথ্য’ জানার দাবি
ভারতে আসার আগে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
ভারতে আসার আগে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

‘পা কাঁপছিল’ মন্ত্রীর, অবস্থানে অনড় পাক সাংসদ, আরও ‘গোপন তথ্য’ জানার দাবি

  • ইমরান খানদের আরও খাদের কিনারায় ঠেলে দিলেন পাকিস্তানের সাংসদ।

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে তড়িঘড়ি ছেড়ে দেওয়ার কারণ ফাঁস করে দিয়েছিলেন। তার জেরে ইমরান খানের মন্ত্রীদের তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছেন পিএমএল-এনের সাংসদ আয়াজ সাদিক। তা সত্ত্বেও নিজের অবস্থানে অনড় থাকলেন সংসদের প্রাক্তন স্পিকার। উলটে দাবি করলেন, ‘অনেক গোপন কথা’ জানেন তিনি। কিন্তু কখনও দায়িত্বজ্ঞানহীনভাবে মন্তব্য করেননি।

আরও পড়ুন : ভারতের আক্রমণের ভয়ে ‘পা কাঁপেনি’, বেআব্রু হয়ে মুখ বাঁচানোর মরিয়া চেষ্টা পাকিস্তানি সেনার

বুধবার পাকিস্তানের সংসদে সাদিকের সেই মন্তব্যের পরদিনই সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছিলেন ইন্টার-সার্ভিস পাবলিক রিলেশনস মেজর জেনারেল বাবর ইফতিকার। তিনি দাবি করেছিলেন, ‘একটি দায়িত্ববান রাষ্ট্রের পরিণত প্রতিক্রিয়া’ হিসেবে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ছাড়া হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন, ‘গতকাল (বুধবার) একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে, যেখানে (অভিনন্দন বর্তমানের মুক্তি সংক্রান্ত) তথ্য বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে।’

আরও পড়ুন : 'ইমরান সরকারের বড় সাফল্য',পুলওয়ামা হামলার দায় 'স্বীকার'-এর পর সাফাই পাকিস্তানের

আয়াজ অভিযোগ করেছিলেন, পুলওয়ামা হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের নেতারা আতঙ্কে পড়েছিলেন। তারপর ভারতীয় বায়ুসেনার যুদ্ধবিমান ‘গুলি করে নামানোর ঘটনা ঘটে’। তিনি আরও দাবি করেছিলেন, ভারতের রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে দেখা না করেই উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ইমরান। বিরোধী সাংসদ অভিযোগ করেন, পাকিস্তানের শীর্ষ নেতৃত্ব এতটাই আতঙ্কে ছিল যে ‘ভয়ে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির পা কাঁপছিল।’

আরও পড়ুন : ভারতীয় সেনাকে ব্যঙ্গ করে কংগ্রেস, রাহুলের ভরসাযোগ্য দেশ পাকিস্তান, নাম না করে বললেন নাড্ডা

সেই মন্তব্যের জেরে শুক্রবার আয়াজকে আক্রমণ জানান ইমরানের মন্ত্রী শিবলি ফরাজ। যিনি বলেন, আয়াজের মন্তব্য ‘ক্ষমার অযোগ্য’। ক্রমাগত সমালোচনা সত্ত্বেও নিজের অবস্থানে অবশ্য অনড় রয়েছেন আয়াজ। পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘এগুলি রাজনৈতিক পার্থক্য। আমার মন্তব্যের সঙ্গে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীকে যুক্ত করে দেওয়া মোটেও দেশের প্রতি সেবা নয়।’

আরও পড়ুন : ছবি, চ্যাট এবং একটি ফোন : পাহাড়প্রমাণ বাধা টপকে কীভাবে পুলওয়ামা মামলার চার্জশিট দাখিল করল NIA?

ইমরানের মন্ত্রীদের অভিযোগ উড়িয়ে আয়াজ পালটা জানান, তাঁর কাছে অনেক গোপন তথ্য আছে। কিন্তু দায়িত্বজ্ঞানহীনভাবে তা মোটেও ফাঁস করে দেননি। ওই সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘আপনারা (সরকার) ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছেন এবং আপনারা পাকিস্তানের প্রতি সুবিচার করেননি। আমি নিজের অবস্থানে অনড়। ভবিষ্যতে আমার কাছে অনেক গোপন তথ্য আছে। আমি জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির প্রধান ছিলাম।’

বন্ধ করুন