বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ড্রাইভিং টেস্টে ব্যর্থ? WhatsApp-এ পাঠিয়ে দেওয়া হবে ভিডিয়ো, চলছে ভাবনাচিন্তা
নয়া চালকের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য পরিকল্পনা করছে দিল্লি সরকার। (ছবিটি প্রতীকী, মহম্মদ জাকির/হিন্দুস্তান টাইমস)
নয়া চালকের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য পরিকল্পনা করছে দিল্লি সরকার। (ছবিটি প্রতীকী, মহম্মদ জাকির/হিন্দুস্তান টাইমস)

ড্রাইভিং টেস্টে ব্যর্থ? WhatsApp-এ পাঠিয়ে দেওয়া হবে ভিডিয়ো, চলছে ভাবনাচিন্তা

  • নয়া চালকের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য পরিকল্পনা করছে সরকার।

নয়া চালকের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য পরিকল্পনা করছে দিল্লি সরকার। 'হিন্দুস্তান টাইমস'-এর প্রতিবেদন অনুয়াযী, কেউ যদি দিল্লিতে ড্রাইভিং পরীক্ষা উতরোতে ব্যর্থ হন, তাহলে তাঁদের সেই গাড়ি চালানোর ভিডিয়ো দেওয়া হতে পারে। তা থেকে নিজেদের ভুল-ত্রুটি আরও ভালোভাবে শুধরে নিতে পারবেন।

দিল্লি সরকারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বিভিন্ন আঞ্চলিক পরিবহন অফিস থেকে প্রতিক্রিয়া এসেছে। তাতে জানানো হয়েছে, স্থায়ী ড্রাইভিং লাইন্সেস আবেদনকারীরা যদি পরীক্ষায় পাশ করতে না পারেন, তাহলে তাঁদের ড্রাইভিং টেস্টের ভিডিয়ো দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ‘আমরা একটি প্রক্রিয়া বিবেচনা করছি। যে প্রক্রিয়ায় হোয়্যাটসঅ্যাপের মাধ্যমে আবেদনকারীকে ভিডিয়ো পাঠানো হবে। বিষয়টি এখনও ভাবনাচিন্তার পর্যায়ে আছে।’

সাধারণত প্রতিটি ড্রাইভিং টেস্টের ক্ষেত্রেই ভিডিয়ো করা হয়। কিন্তু আবেদনকারীরা সেই ভিডিয়ো হাতে পান না। ওই আধিকারিক জানিয়েছেন, সেই ভিডিয়ো পাঠানোর বিষয়টির আইনি দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তারপরই নয়া চালকদের সেই ভিডিয়ো দেওয়া হবে। তবে আবেদন করলে তবেই সেই ভিডিয়ো দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। অর্থাৎ বাধ্যতামূলকভাবে কোনও নিয়ম চালু করা হচ্ছে না। যাঁরা স্থায়ী ড্রাইভিং লাইন্সেস পাওয়ার জন্য পরীক্ষা দেবেন, তাঁদের মধ্যে যে চালকরা ভিডিয়ো পাওয়ার আবেদন করবেন, তাঁদের হাতেই সেই 'প্রমাণ' তুলে দেওয়া হবে।

হিন্দুস্তান টাইমস'-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯ সালের জুলাইয়ের মধ্যে যে অটোমেটেড ট্র্যাক চালু করা হয়েছিল, তাতে কমপক্ষে ৪৮.৯১ শতাংশ আবেদনকারী ড্রাইভিং টেস্টের গণ্ডি টপকাতে পারেননি। অটোমেটেড টেস্টের ব্যর্থতার হার ছিল ১৬.২৪ শতাংশ। অটোমেটেড ড্রাইভিং টেস্ট ট্র্যাকে ২৪ টি মাপকাঠির ভিত্তিতে আবেদনকারীদের বিচার করা হয়।

বন্ধ করুন