সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো এই বার্তা সরাসরি ভুয়ো।
সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো এই বার্তা সরাসরি ভুয়ো।

Fact Check: সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা নিয়ে পোস্ট করলে শাস্তি! জানুন আসল তথ্য

  • বার্তাটি আগাগোড়া ভুয়ো তথ্যে ভরা। সরকারের তরফে এমন কোনও নির্দেশিকা জারি করা হয়নি।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ সম্পর্কে কোনও সংবাদ ব্যক্তিগত উদ্যোগে পোস্ট করলে কড়া শাস্তি হতে পারে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো এই বার্তা সরাসরি ভুয়ো।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাওয়া এক বার্তায় জানানো হয়েছে, ‘আজ রাত ১২টা থেকে সারা দেশে বিপর্যয় মোকাবিলা আইন লাগু হয়েছে। এই পদক্ষেপের জেরে এবার থেকে সরকারি দফতর ছাড়া কোনও নাগরিক করোনাভাইরাস সম্পর্কে কোনও পোস্ট করলে, এমন কোনও তথ্য শেয়ার বা ফরোয়ার্ড করলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। গ্রুপ অ্যাডমিনদের কাছে অনুরোধ, এই তথ্যটি নিজেদের গ্রুপে পোস্ট করে বাকি সদস্যদের জানান। দয়া করে এই নিষেধাজ্ঞা কঠোর ভাবে পালন করে চলুন।’

ভুয়ো বার্তাটি বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে তার সঙ্গে LiveLaw.in ওয়েবসাইটের একটি খবরের লিঙ্কও জুড়ে দেওয়া হয়েছে।

জেনে রাখা দরকার, এই বার্তাটি আগাগোড়া ভুয়ো তথ্যে ভরা। সরকারের তরফে এমন কোনও নির্দেশিকা জারি করা হয়নি। এ কথা সত্যি যে বিপর্যয় মোকাবিলা আইন ও তথ্য প্রযুক্তি আইনে ভুয়ো খবর ও বার্তা পোস্ট বা ফরোয়ার্ড করে আতঙ্ক সৃষ্টি করা সাইবার অপরাধ হিসেবে গণ্য

তবে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কোনও খবর ব্যক্তিগত ভাবে পোস্ট বা শেয়ার করার উপরে কোনও নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়নি। পরিস্থিতি দেখে ভাইরাল হয়ে যাওয়া বার্তা নস্যাৎ করে নতুন একটি লিঙ্ক প্রকাশ করেছে LiveLaw.in।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ মার্চ করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ এবং পরিযায়ী শ্রমিকদের উন্নয়নের স্বার্থে করতে কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্যোগ সংক্রান্ত একটি জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপের আবেদন করেন স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত করোনা সংক্রান্ত খবর যাতে শুধুমাত্র সরকারি তথ্যসূত্রের উপর ভিত্তি করে প্রকাশ করা হয়, তা নিশ্চিত করতে তিনি শীর্ষ আদালতকে নির্দেশ দেওয়ার আর্জি জানান।

যদিও এই আবেদন শোনার পরে স্বাধীন আলোচনার অধিকারকেই অগ্রাধিকার দেয় সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি এস এ বোবডের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বিভ্রান্তি ও গণ-আতঙ্ক এড়াতে সরকারি তথ্যের ভিত্তিতে পরিস্থিতির অগ্রগতি সম্পর্কে সংবাদ প্রকাশ করার নির্দেশ দেয়।

সরকারি অবস্থান ও শীর্ষ আদালতের নির্দেশের প্রেক্ষিতে ভুয়ো খবর প্রচার নিয়ে ‘গভীর অসন্তোষ’ প্রকাশ করে এডিটর্স গিল্ড অফ ইন্ডিয়া।

তবে কোনও অবস্থাতেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা সংক্রান্ত সঠিক খবরের লিঙ্ক পোস্ট বা ফরোয়ার্ড করার উপরে আইনি নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়নি।

বন্ধ করুন