বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মিথ্যা যৌন হয়রানির অভিযোগ নারীর ক্ষমতায়নের জন্য ক্ষতিকর : দিল্লি হাই কোর্ট
দিল্লি হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য মিন্ট)
দিল্লি হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য মিন্ট)

মিথ্যা যৌন হয়রানির অভিযোগ নারীর ক্ষমতায়নের জন্য ক্ষতিকর : দিল্লি হাই কোর্ট

  • দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সহকারী অধ্যাপকের বিরুদ্ধে তাঁর প্রতিবেশী যৌন হয়রানির অভিযোগ করে। সেই সংক্রান্ত মামলার শুনানি চলছিল দিল্লি হাই কোর্টে।

মিথ্যা যৌন হয়রানির অভিযোগ নারীর ক্ষমতায়নের জন্য ক্ষতিকর। এমনই পর্যবেক্ষণ দেন দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি সুব্রমনিয়াম প্রসাদ। একটি মামলার প্রেক্ষিতে বিচারপতি বলেন, ‘এটা যৌন হয়রানির অপরাধকে তুচ্ছ করে তোলে এবং প্রকৃতপক্ষে যৌন হয়রানির সম্মুখীন হওয়া অন্য ভুক্তভোগীদের দায়ের করা অভিযোগের সত্যতা নিয়ে সন্দেহ সৃষ্টি করে।’

দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সহকারী অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪এ এবং ৫০৬ নম্বর ধারার অধীনে দিল্লি পুলিশের দায়ের করা এফআইআর বাতিল করে দেয় দিল্লির উচ্চ আদালত। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি এবং অপরাধমূলক ভয় দেখানোর অভিযোগে এফআইআরটি গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে করেছিল তাঁর প্রতিবেশী। তবে অভিযুক্ত আদালতকে বলেন যে অভিযোগকারীর ছেলের বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রীর দায়ের করা অভিযোগটি প্রত্যাহার করার জন্য তাঁকে জোর দেওয়া হচ্ছিল। তবে সেই দাবি না মানায়, তাঁর বিরুদ্ধে পাল্টা মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছিল।

আদালতের সামনে দায়ের করা আবেদন থেকে জানা যায়, মামলায় অভিযুক্ত এবং অভিযোগকারীদের মধ্যে দীর্ঘদিনের বিরোধ রয়েছে। মূলত আবাসিক সম্পত্তি সম্পর্কিত সেই বিরোধ। এদিকে পুলিশ আদালতে যুক্তি দেখিয়েছিল যে অভিযুক্ত এবং তাঁর স্ত্রী অভ্যাসগত অভিযোগকারী এবং তারা উভয়েই তাদের আশেপাশে যে নির্মাণকাজ হয়েছে তার বিষয়ে বেশ কয়েকটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বন্ধ করুন