বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মেয়েকে নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ, বাবার কুকীর্তি জানতে পেরে আত্মঘাতী ছেলে
মেয়েকে নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ, বাবার কুকীর্তি জানতে পেরে আত্মঘাতী ছেলে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
মেয়েকে নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ, বাবার কুকীর্তি জানতে পেরে আত্মঘাতী ছেলে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

মেয়েকে নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ, বাবার কুকীর্তি জানতে পেরে আত্মঘাতী ছেলে

  • একটি অডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেখানে ওই নির্যাতিতা কিশোরী তার মাসিকে বাবার কুকীর্তির কথা বলতে শোনা গিয়েছে।সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া সেই অডিও ক্লিপের কথা জানতে পারে নির্যাতিতার ভাই। বাবার কুকীর্তির কথা জানতে পেরেই আত্মঘাতী হয় সে

ফোন কেনার নাম করে মেয়েকে নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেছিল বাবা! বাবার কুকীর্তির বিষয় জানতে পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিল ছেলে।শনিবার মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জালোর জেলায়।

ওইদিন একটি অডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেখানে ওই নির্যাতিতা কিশোরী তার মাসিকে বাবার কুকীর্তির কথা বলতে শোনা গিয়েছে।সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া সেই অডিও ক্লিপের কথা জানতে পারে নির্যাতিতার ভাই। বাবার কুকীর্তির কথা জানতে পেরেই আত্মঘাতী হয় সে। যদিও ওই অডিও ক্লিপের সত্যতা যাচাই করেনি ‘হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা’।

অডিও ক্লিপ ভাইরাল হওয়ার কথা জানতে পারে রাজস্থান পুলিশ। এরপর সেই অডিওটি ট্রেস করে মেয়েটির ফোন নম্বর জোগাড় করেন তদন্তকারীরা। তারপরই নির্যাতিতার বাড়ি খুঁজে বের করে পুলিশ। কিন্তু পুলিশ বাড়িতে পৌঁছানোর আগেই অভিযুক্ত বাবা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পুলিশ বাড়িতে যাওয়ার কারণে দিদির ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হয় ওই কিশোর। তারপরে ঘর ছেড়ে বেরিয়ে যায় সে। সঞ্চোর এলাকায় নর্মদা নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে নির্যাতিতার ভাই।

ওই অডিও ক্লিপে ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কিশোরীকে বলতে শোনা গিয়েছে, পরিবারের কোনও এক অনুষ্ঠানে তার বাবা সবাইকে জানিয়েছিলেন যে, মেয়েকে নতুন ফোন কিনে দেবেন। সেজন্য কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি মেয়েকে নিয়ে ফোন কিনতে বেরোবেন। যাতে সে তার পছন্দ মতো ফোন কিনতে পারে। ঘটনার দিনে ওই কিশোরীর মা তাঁদের ছোট ছেলেকেও সঙ্গে নিয়ে যেতে বলেন। অভিযুক্ত বাবা সেই প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দেন। জানান, মেয়েকে বিশেষ উপহার দেওয়ার জন্যই তাকে একা নিয়ে যাচ্ছেন। 

অভিযোগ ওঠে, এরপরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে মোবাইলের দোকানে না গিয়ে একটি নির্জন জায়গায় মেয়েকে নিয়ে যান। সেখানেই অভিযুক্তই ব্যক্তি নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, ওই কিশোরী যাতে এই ঘটনার কথা কাউকে না বলেন, সে কারণে তাকে ভয়ও দেখায় তার বাবা।

নির্যাতিতা কিশোরীর অভিযোগ, এর আগেও তার বাবা তার সঙ্গে যৌন হেনস্থা করার চেষ্টা করেছেন। ঘুমন্ত অবস্থায় তার সঙ্গে অভব্য আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। এমনকী, মেয়েকে কারও সঙ্গে কথাও বলতে দিত না অভিযুক্ত বাবা বলে অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

 

বন্ধ করুন