বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শিশু নির্যাতন এবং চাইল্ড পর্নোগ্রাফির লিঙ্ক পোস্টের অভিযোগ টুইটারের বিরুদ্ধে
ফাইল ছবি : রয়টার্স  (REUTERS)
ফাইল ছবি : রয়টার্স  (REUTERS)

শিশু নির্যাতন এবং চাইল্ড পর্নোগ্রাফির লিঙ্ক পোস্টের অভিযোগ টুইটারের বিরুদ্ধে

এর আগেও মে মাসের শেষে পকসো আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে টুইটারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

জাতীয় শিশু অধিকার রক্ষা কমিশনের (NCPCR) অভিযোগের ভিত্তিতে টুইটারের বিরুদ্ধে এফআইআর দাখিল করল দিল্লি পুলিশের সাইবার সেল। টুইটারের বিরুদ্ধে পকসো অ্যাক্ট এবং আইটি অ্যাক্ট ভঙ্গের অভিযোগ তোলা হয়েছে। টুইটারের তরফে জানানো হয়েছে, শিশুদের পর্ণ সংক্রান্ত বিষয়টি কোনওভাবে বরদাস্ত করা হবে না।

'NCPCR-এর অভিযোগের ভিত্তিতে পদক্ষেপ করা হয়েছে। শিশু নির্যাতন এবং চাইল্ড পর্নোগ্রাফির পোস্ট ও লিঙ্ক দেওয়া বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট রয়েছে টুইটারে। ভারতীয় দণ্ডবিধি, আইটি অ্যাক্ট এবং পকসো অ্যাক্টের ভিত্তিতে কেস রুজু করা হয়েছে। তদন্ত শুরু হয়েছে,' জানান দিল্লি পুলিশের মুখপাত্র চিন্ময় বিশওয়াল। তিনি বলেন, ‘টুইটার ও টুইটার কমিউনিকেশন ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।’

গত বেশ কিছুদিন ধরে টুইটারকে কেন্দ্র করে চলা বিতর্কের ঝড়ে এটি নবতম সংযোজন। নয়া আইটি নীতি প্রণয়ন নিয়ে ইতিমধ্যেই কেন্দ্র-টুইটার বিরোধ চরমে পৌঁছেছে। এর আগেও মে মাসের শেষে পকসো আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে টুইটারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে NCPCR। সেই সঙ্গে শিশুদের জন্য টুইটার ব্যান করার আর্জি করেও কেন্দ্রকে চিঠি লেখে এনসিপিসিআর।

এনসিপিসিআর দিল্লি পুলিশ মারফত টুইটার ইন্ডিয়ার মাধ্যমে অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগে বলা হয়, দুইটি ঘটনার প্রেক্ষিতে টুইটার ইন্ডিয়ার কাছে তথ্যাবলী চেয়ে পাঠায় কমিশন। সেই মাফিক জবাব দেয় টুইটার ইন্ডিয়া। কিন্তু, কমিশনের অভিযোগ, ভুয়ো তথ্য প্রদান করেছে টুইটার। শুধু তাই নয়, পকসো আইন লঙ্ঘণের অভিযোগ তোলা হয় মাইক্রো-ব্লগিং সাইটটির বিরুদ্ধে।

এনসিপিসিআর-এর অভিযোগ, টুইটারে চাইল্ড পর্ণোগ্রাফি, শিশু নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, ডার্ক ওয়েব ইত্যাদির একাধিক লিঙ্ক পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু, সেই লিঙ্কগুলি ডিলিট করার বিষয়ে কিছুই করেনি টুইটার। কমিশনের অভিযোগ, শিশু নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত এ ধরনের লিঙ্কগুলির বিষয়ে উদাসীন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি। সে কারণেই যতদিন না টুইটার নিরাপদ হচ্ছে, ততদিন তা শিশুদের জন্য ব্যান করা হোক, কেন্দ্রকে আর্জি জানায় কমিশন।

বন্ধ করুন