বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতে প্রথম 'ককটেল' পাওয়া করোনা রোগী ১ দিনেই ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে
ভারতে প্রথম ককটেল ইনজেকশন পান ৮৪ বছর বয়সী মহব্বত সিং  (ছবি সৌজন্যে টুইটার/মেদান্ত)
ভারতে প্রথম ককটেল ইনজেকশন পান ৮৪ বছর বয়সী মহব্বত সিং  (ছবি সৌজন্যে টুইটার/মেদান্ত)

ভারতে প্রথম 'ককটেল' পাওয়া করোনা রোগী ১ দিনেই ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে

  • ভারতে প্রথম ককটেল ইনজেকশন পান ৮৪ বছর বয়সী মহব্বত সিং৷

ভারতে প্রথম কোভিড প্রতিরোধী অ্য়ান্টিবডি ককটেল ইনজেকশন পান ৮২ বছরের এক বৃদ্ধ৷ এবং ইনজেকশন পাওয়ার একদিনের মাথাতেই সুস্থ অবস্থায় তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হল বলে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, গত বছর প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, তখন তাঁকেও এই ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল। সেই ককটেল ইনজেকশনই একদিন আগে লঞ্চ করা হয় ভারতীয় বাজারে। এই ইনজেকশনের একটি ডোজের দাম প্রায় ৬০ হাজার টাকা।

ভারতে প্রথম ককটেল ইনজেকশন পান ৮৪ বছর বয়সী মহব্বত সিং৷ তিনি হরিয়ানার বাসিন্দা৷ করোনায় আক্রান্ত হয়ে গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি৷ গত পাঁচদিন ধরে গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল তাঁর৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর, মঙ্গলবার মহব্বতকে কোভিড প্রতিরোধী অ্য়ান্টিবডি ককটেল ইনজেকশন দেওয়া হয়৷ এরপর বুধবার সুস্থ অবস্থায় তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয় হাসপাতালে থেকে।

প্রসঙ্গত, সোমবারই Roche-র তৈরি এই ইনজেকশনের প্রথম দফার ব্যাচ ভারতের বাজারে ছাড়া হয়। ভারতে এই ককটেল ইনজেকশন উৎপাদনের দায়িত্বে রেছে সিপলা লিমিটেড৷ এই ওষুধের দ্বিতীয় ব্যাচ তারা বাজারে ছাড়তে চলেছে জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে। তবে এই ওষুধের দাম অনেক বেশি। এর একটি ডোজের বাজার মূল্য ৫৯ হাজার ৭৫০ টাকা। যা সাধারণ মানুষের জন্য অনেকটাই ব্যবহুল।

এদিকে মেদান্ত হাসপাতালের এমডি এবং চেয়ারম্য়ান ডঃ নরেশ ত্রেহান এই ককটেল ইনজেকশনের বিষয়ে জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত রোগীকে যদি প্রথমেই অ্য়ান্টিবডি ককটেল ইনজেকশন দেওয়া যায়, তবে তার সুফল মেলে৷ আসলে এই ভাইরাস মানুষের শরীরে প্রবেশ করার পরই বংশবিস্তার শুরু করে এবং একের পর এক কোষের উপর হামলা চালায়৷ কিন্তু অ্য়ান্টিবডি ককটেল ইনজেকশন সেই প্রক্রিয়াকে থামিয়ে দেয়৷ আর তাতেই কার্যক্ষমতা হারায় কোভিড ভাইরাস৷ শেষমেশ নষ্ট হয়ে যায় সেটি৷

বন্ধ করুন