বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিশেষ ঘর তৈরি করে তাক লাগালো মধ্যপ্রদেশ, গোটা রাজ্য দেখা যাবে ক্যামেরায়
মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

বিশেষ ঘর তৈরি করে তাক লাগালো মধ্যপ্রদেশ, গোটা রাজ্য দেখা যাবে ক্যামেরায়

  • এই প্রথম তাঁরা একটা ঘর তৈরি করলেন যেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রী এবং অন্যান্য আধিকারিকরা গোটা রাজ্যের প্রতিটি কোণা নজর রাখতে পারবেন।

গোটা রাজ্যে চষে বেড়ানো সম্ভব নয় রোজ। কিন্তু গোটা রাজ্যের প্রতিটি কোণার পরিস্থিতি জানা প্রয়োজন। এই বিষয়টি অনুভব করে অভিনব পদক্ষেপ করল মধ্যপ্রদেশ সরকার। এই প্রথম তাঁরা একটা ঘর তৈরি করলেন যেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রী এবং অন্যান্য আধিকারিকরা গোটা রাজ্যের প্রতিটি কোণা নজর রাখতে পারবেন। বাঁধের জলের উচ্চতা, নদীর জলের উচ্চতা, ট্র‌্যাফিক পরিস্থিতি, ধর্মীয় স্থান এবং নানা মেলার উপর নজর রাখা যাবে বলে জানিয়েছেন এক আধিকারিক।

এই বিষয়ে রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব (‌স্বরাষ্ট্র)‌ রাজেশ রাজোরা বলেন, ‘‌এই বিশেষ ঘরটি তৈরি হয়েছে ভোপালে। এই ঘর থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা–সহ যে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতির উপর নজর রাখা যাবে। তবে এই বিশেষ ঘরটি তৈরি করতে বাড়তি কোনও খরচ হয়নি। যা পরিকাঠামো ছিল তা দিয়েই তৈরি করা হয়েছে।’‌ কিন্তু কী করে গোটা বিষয়টি সম্ভব হবে?‌ এই বিষয়ে রাজোরা বলেন, ‘‌রাজ্যের প্রতিটি কোণায় সিসিটিভি লাগানো হয়েছে। সেখান থেকে লাইভ ফিড আসতে থাকবে এখানে। এমনকী এখান থেকেই মিলবে লাইভ রিপোর্ট।’‌

কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হল?‌ মধ্যপ্রদেশ সরকার জানিয়েছে, ২০২০ সালে আগস্ট মাসে বন্যায় ১৪ জন মারা গিয়েছিল। ক্ষতি হয়েছিল সবজি থেকে শস্যের। ২৬টি জেলা জলের তলায় চলে গিয়েছিল। আবার খালে বাস পড়ে ৫০ জন মারা গিয়েছিলেন। ফলে সেখানে যোগাযোগ করা কঠিন হয়ে পড়েছিল। এই পরিস্থিতি থেকে শিক্ষা নিয়ে এমন বিকল্প পথের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবার থেকে মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানকে আর সরেজমিনে তদন্ত করতে ঘটনাস্থলে যেতে হবে না। এই বিশেষ ঘর থেকেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা যাবে।

বন্ধ করুন