রহস্যমৃত্যুর তদন্তে নেমেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।
রহস্যমৃত্যুর তদন্তে নেমেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।

বন্ধ বাড়িতে পরিবারের ৫ সদস্যের রহস্যমৃত্যু, তদন্তে নামল পুলিশ

  • প্রতিটি দরজাই বাড়ির ভিতর থেকে বন্ধ ছিল। ঘটনাস্থল থেকে এক বোতল শৌচাগার পরিষ্কার করার সালফা তরল পাওয়া গিয়েছে।

উত্তর প্রদেশের এটাহ রহস্যময় মৃত্যু হল একই পরিবারের পাঁচ সদস্যের। শনিবার সকালে শৃঙ্গারপুর এলাকার এক বাড়ি থেকে দেহগুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে রয়েছেন এটাহর স্বাস্থ্য দফতরের অবসরপ্রাপ্ত করণিক (৭০), তাঁর পুত্রবধূ (৩৫), ১০ ও ২ বছর বয়েসি বৃদ্ধের দুই নাতি এবং তাঁর পুত্রবধূর বোন (২৫)।

এটাহর এসএসপি সুনীল কুমার সিং জানিয়েছেন, দেহগুলি ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত কিছু জানা না গেলেও ময়না তদন্তের রিপোর্টে কিছু হদিশ মিলতে পারে বলে আশা পুলিশের।

এসএসপি জানিয়েছেন, ওই বাড়ির দরজা ভেঙে ঢোকার কোনও চিহ্ন পাওয়া যায়নি। প্রতিটি দরজাই বাড়ির ভিতর থেকে বন্ধ ছিল বলে তিনি জানিয়েছেন।

তবে ঘটনাস্থল থেকে এক বোতল শৌচাগার পরিষ্কার করার সালফা তরল পাওয়া গিয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। এ ছাড়া নিহত বধূর ডান কব্জিতে পাওয়া গিয়েছে ক্ষতচিহ্ন। তাঁর দেহের কাছ থেকে মিলেছে একটি ব্লেডও।

রান্নাঘরে রাখা দুধের নমুনাও সংগ্রহ করেছেন গোয়েন্দারা, জানিয়েছেন এসএসপি। খতিয়ে দেখা হচ্ছে এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাক্তন স্বাস্থ্যকর্মীর ছেলে উত্তরাখণ্ডের এক সংস্থায় কর্মরত। তাঁকে ঘটনার কথা জানানো হয়েছে।

জানা গিয়েছে, এ দিন সকালে ওই বাড়ির দরজায় কড়া নেড়ে সাড়া পাননি স্থানীয় দুধ বিক্রেতা। তিনি প্রতিবেশীদের তা জানালে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। ওই পরিবারের সঙ্গে কারও শত্রুতা রয়েছে বলেও জানেন না আত্মীয় ও প্রতিবেশীরা।


বন্ধ করুন