বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Puppies killed brutally: মাথায় হাতুড়ি মেরে ৫ কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা, দেহ ফেলা হয়েছিল ভ্যাটে

Puppies killed brutally: মাথায় হাতুড়ি মেরে ৫ কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা, দেহ ফেলা হয়েছিল ভ্যাটে

মাথায় হাতুড়ি মেরে ৫ কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা, দেহ ফেলা হয়েছিল ভ্যাটে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

Puppies killed brutally: পুলিশ জানিয়েছে, আবর্জনা ফেলতে গিয়ে পাঁচ কুকুরছানার মৃতদেহ দেখতে পান ওই স্থানীয় বাসিন্দা। রক্তে ভেসে যাচ্ছিল ভ্যাট। দেহের কাছেই একটি হাতুড়ি পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাতে রক্তের দাগও লেগেছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মাথায় হাতুড়ি মেরে পাঁচ কুকুরছানাকে হত্যা করা হল। এমনই নৃশংস ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে। ইতিমধ্যে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ। তবে এখনও কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

ওই নৃশংস ঘটনা সামনে আসে, যখন এক স্থানীয় বাসিন্দা ভ্যাটে আবর্জনা ফেলতে গিয়েছিলেন। পুলিশ জানিয়েছে, আবর্জনা ফেলতে গিয়ে পাঁচ কুকুরছানার মৃতদেহ দেখতে পান ওই স্থানীয় বাসিন্দা। রক্তে ভেসে যাচ্ছিল ভ্যাট। দেহের কাছেই একটি হাতুড়ি পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাতে রক্তের দাগও লেগেছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সেই খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। এক পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে পাঁচ কুকুরছানার দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে যা মনে হচ্ছে, তাতে মাথায় আঘাতের জেরে ওই পাঁচটি কুকুরছানার মৃত্যু হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে এলে পুরো বিষয়টি আরও স্পষ্ট হবে। 

আরও পড়ুন: Man shot dead to save Dog: কুকুরকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু বছর ২৫-এর যুবকের, খোঁজ চলছে অভিযুক্তের

কোতওয়ালির টাউন ইন্সপেক্টর রাজীব শর্মা জানান, স্থানীয় বাসিন্দা সঞ্জয় সিঙঘলের অভিযোগের ভিত্তিতে পশুদের উপর নৃশংসতা বিরোধী আইনের ধারায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগপত্রে সঞ্জয় বলেছেন, 'দিনকয়েক আগে একটি ফাঁকা জায়গায় পাঁচটি ছানার জন্ম দিয়েছিল একটি কুকুর। ওদের খাওয়াতেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার সকালে কুকুরছানাদের দেহ উদ্ধার করা হয়। হাতুড়ি দিয়ে মাথায় মেরে কুকুরছানাদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছে অভিযুক্ত। ওই হাতুড়িও পাওয়া গিয়েছে।'

আরও পড়ুন: BSF dog gets pregnant: বিএসএফের অধীনস্থ কুকুর গর্ভবতী! কড়া নজরদারিতে কীভাবে ঘটল এমন কাণ্ড? নির্দেশ তদন্তের

অভিযুক্ত বা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের আর্জি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে তদন্ত করছে পুলিশ। আপাতত কেউ ধরা পড়েনি বলে জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন