বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে প্রাণে মারার হুমকি, গ্রেফতার নার্স
মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে প্রাণে মারার হুমকি, গ্রেফতার নার্স। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে প্রাণে মারার হুমকি, গ্রেফতার নার্স। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে প্রাণে মারার হুমকি, গ্রেফতার নার্স

  • ধৃতের নাম নিভিয়ান পেটিট ফেল্পস, বয়স ৩৯। ২০০১ সাল থেকে জ্যাকসন হেলথ সিস্টেমে কাজ করে।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল ফ্লোরিডার এক হাসপাতালের নার্সকে। ধৃতের নাম নিভিয়ান পেটিট ফেল্পস, বয়স ৩৯। ২০০১ সাল থেকে জ্যাকসন হেলথ সিস্টেমে কাজ করে। শনিবারই সেই নার্সকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগে খুনের হুমকি পান মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। তারপরই কমলার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা মার্কিন সিক্রেট সার্ভিস ঘটনার তদন্তে নামে। সেই তদন্তের সূত্র ধরেই গ্রেফতার করা হয় নিভিয়ান পেটিট ফেল্পসকে। তদন্ত থেকে উঠে এসেছে, জেনে বুঝেই মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছিল ধৃত নার্স।

অভিযোগের ভিত্তিতে দক্ষিণ ফ্লোরিডায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে এই সংক্রান্ত একটি ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্তকারীদের অভিযোগ, ১৩ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টকে খুন এবং শারীরিক ক্ষতি করার হুমকি দিয়েছে ফেল্পস। অভিযোগে এও বলা হয়েছে, ফেল্পস তাঁর জেলে বন্দি স্বামীকে ভিডিও-ও পাঠিয়েছেন। ওই ভিডিওতেই দেখা গিয়েছে ফেল্পস ক্যামেরার সামনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছে। অভিযুক্ত বলে, 'কমলা হ্যারিস তুমি মরতে চলেছো। আজ থেকে ৫০ দিন পর। দিন গোনা শুরু করো।'

ফেল্পস আরও বলে, 'আমি বিশ্বাস করি না যে কমলা হ্যারিস কৃষ্ণাঙ্গ। শহথ গ্রহণের দিন তিনি বাইবেলের অসম্মান করেছেন। শপথ বাক্য পাঠের সময় তাঁর হাত বাইবেলের বদলে পার্সে ছিল।' প্রসঙ্গত ফেল্পস ফেব্রুয়ারিতে গোপনে অস্ত্রের অনুমতি চেয়ে আবেদনও করেছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তাছাড়া শুটিং রেঞ্জে ফেল্পসের ছবি মিলেছে যেখানে বুলেট হোলে টার্গেটের পাশে দাঁড়িয়ে তাকে হাসতে দেখা যাচ্ছে। 

 

বন্ধ করুন