বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জার্মানিতে পিৎজা ডেলিভারির কাজ করেন আফগানিস্তানের প্রাক্তন প্রযুক্তি মন্ত্রী
ফাইল ছবি : টুইটার  (Twitter)
ফাইল ছবি : টুইটার  (Twitter)

জার্মানিতে পিৎজা ডেলিভারির কাজ করেন আফগানিস্তানের প্রাক্তন প্রযুক্তি মন্ত্রী

  • বর্তমানে জার্মানির লেইপজিগ শহরে সাইকেলে পিত্জা ডেলিভারিই পেশা তাঁর।

এক সময়ে আফগানিস্তানের যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ছিলেন সৈয়দ আহমেদ শাহ সাদাত। কিন্তু নিজের ইচ্ছাতেই সেই জীবন ত্যাগ করেন তিনি। বর্তমানে জার্মানির লেইপজিগ শহরে সাইকেলে পিত্জা ডেলিভারিই পেশা তাঁর।

আফগানিস্তানে তালিবান দখলের অনেক আগেই অবশ্য সেদেশ ছেড়েছেন সাদাত

তাঁর যে যোগ্যতা কম, এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়। প্রখ্যাত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রযুক্তিবিদ্যায় ডবল মাস্টার্স ডিগ্রি আছে তাঁর। প্রায় ২৩ বছর ধরে বিশ্বের বিভিন্ন নামজাদা সংস্থায় কাজ করেছেন তিনি। প্রায় ১৩টি দেশের বিভিন্ন সংস্থায় উচ্চপদে কাজ করার অভিজ্ঞতা তাঁর।

এর পাশাপাশি ২০০৫ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানের প্রযুক্তি মন্ত্রকের পরামর্শদাতা ছিলেন। ২০১৬-১৭ সালে লন্ডনে আরিয়ানা নামের এক টেলিকম সংস্থার সিইও-র দায়িত্বও সামলেছেন।

এরপরেই প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে আসেন। ২০১৮ সালে আশরাফ গনি ক্যাবিনেটে প্রযুক্তি মন্ত্রী হিসাবে যোগ দেন। কিন্তু সরকারের সঙ্গে ক্রমেই বাড়তে থাকে মতবিরোধ। তার জেরেই ২০২০ সালে পদত্যাগ করেন তিনি। রাগে-দুঃখে দেশই ছেড়ে দেন তিনি। চলে আসেন জার্মানি।

সাদাত জানিয়েছেন, জার্মানিতে অল্প কিছুদিন সঞ্চয়ের টাকায় ছিলেন তিনি। এরপর একটি মাউন্টেন বাইক কেনেন তিনি। আর জার্মানির ফুড ডেলিভারি অ্যাপ লিভরান্ডোয় ডেলিভারি পার্সন হিসাবে কাজ নেন।

কিন্তু এত বড় বড় পদের পরে এমন কাজ কেন? সাদাত বলেন, 'আমার এই কাহিনী থেকে এশিয়া আর আরবের উঁচু পদের মানুষরা নিজেদের চিন্তাধারা পাল্টাক, এটুকুই কামনা করি। এর বেশি কিছু বলতে চাই না।' আফগানিস্তানে তালিবান দখলের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গণতান্ত্রিক সরকারের যে এত দ্রুত পতন হবে, তা ভাবিনি।’

বন্ধ করুন