বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ত্রিপুরায় রাজনৈতিক হিংসার শিকার মানিক সরকার সহ ৩ সিপিএম বিধায়ক, অভিযুক্ত বিজেপি
মানিক সরকার (ফাইল ছবি)
মানিক সরকার (ফাইল ছবি)

ত্রিপুরায় রাজনৈতিক হিংসার শিকার মানিক সরকার সহ ৩ সিপিএম বিধায়ক, অভিযুক্ত বিজেপি

  • ত্রিপুরার বিরোধী দলনেতা তথা সেরাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার সহ তিন সিপিএম বিধায়কের উপর হামলার অভিযোগ উঠল। অভিযোগের তির রাজ্যের শাসক দল বিজেপির দিকে।

প্রিয়াঙ্কা দেব বর্মণ

ত্রিপুরার বিরোধী দলনেতা তথা সেরাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার সহ তিন সিপিএম বিধায়কের উপর হামলার অভিযোগ উঠল। অভিযোগের তির রাজ্যের শাসক দল বিজেপির দিকে। জানা গিয়েছে দক্ষিণ জেলায় এই ঘটনাটি ঘটে। জানা গিয়েছে, মানিক সরকার সহ সিপিএমের বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী দক্ষিণ জেলার শান্তিবাজারে গিয়েছিলেন। সেখানকার স্থানীয় মানুষদের উপর বিজেপির 'অত্যাচার'-এর অভিযোগ ওঠা পরিস্থিতি দেখতে গিয়েছিলেন মানিক সরকাররা। অভিযোগ, তখনই বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা হামলা চালায় সিপিএম নেতাদের উপর।

সিপিএম-এর তরফে জানা গিয়েছে যে মানিক সরকার শান্তিবাজারে গেলে তাঁকে কালো পতাকা দেখানো হয়। মানিক সরকারের গাড়ি থামানোর চেষ্টা করা হয় বলেও অভিযোগ। পরে পাথড়, ইট, বোতল এবং ডিম ছোড়া হয় মানিক সরকার এবং অন্যান্য সিমিএম নেতার গাড়ি লক্ষ্য করে। যদিও ঘটনায় কেউ জখম হয়নি বলে জানানো হয়েছে।

ঘটনা প্রসঙ্গে মানিক সরকার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'আমাদের এবং সেখানে কর্মরত পুলিশকর্মীদের উপর হামলা চালানো হয়। আমি হামলাকারীদের বলেছিলাম যাতে পুলিশের উপর কোনও হামলা না চালানো হয়। যদি শান্তি ও গণতন্ত্র আমার রক্তের বিনিময়ে ফিরে আসে, তাহলে আমি তা দিতে প্রস্তুত। আমি তাতে দুঃখ পাব না। আমি এখনও শান্তি এবং গণতন্ত্র ফেরানোর আবেদন করছি। এই ধরনের হামলা বন্ধ হওয়া উচিত।'

তিনি আরও বলেন, 'মানুষের পাশে সব সময় দাঁড়িয়ে থাকবে কমিউনিস্ট পার্টি। এই ধরনের হামলা আমাদের দমিয়ে রাখতে পারবে না। মানুষ এই ধরনের হামলা কখনও ভুলবে না। বিজেপি ইতিমধ্যেই জনসাধারণের সমর্থন হারাতে শুরু করেছে। সাম্প্রতিক নির্বাচনে চার রাজ্যে তাদের (বিজেপি) ভরাডুবির পর থেকে মানুষ আরও বিজেপির থেকে সরে যাচ্ছে।'

এদিকে পুলিশ এই ঘটনার প্রেক্ষিতে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করেন মানিক সরকার। মানিক সরকার বলেন, 'মুখ্য়মন্ত্রী আস্বস্ত করলেও রাজ্যটা জঙ্গলরাজের দিকে এগোচ্ছে। আমি সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন করছি যাতে তারা এই সরকারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলে।' এদিকে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশ জানায় যে তারা কোনও অভিযোগ পায়নি যার প্রেক্ষিতে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া যায়। অপরদিকে এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে সিপিএম পলিটব্যুরো একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

বন্ধ করুন