বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কংগ্রেসের প্রতি 'ক্ষোভ উগরে' বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নাতি
প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জৈল সিংয়ের নাতি ইন্দ্রজিৎ সিং।
প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জৈল সিংয়ের নাতি ইন্দ্রজিৎ সিং।

কংগ্রেসের প্রতি 'ক্ষোভ উগরে' বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নাতি

  • কংগ্রেসের মধ্যে এই দ্বন্দ্ব ভোটের বাক্সে প্রভাব ফেলতে পারে, সেই কথা আন্দাজ করেই এখন থেকে রণকৌশল সাজাচ্ছে বিজেপি, এমনটাই রাজনৈতিক মহলের মত।

দাদু চেয়েছিলেন তিনি যেন রাজনীতিতে যোগ দেন। সেই স্বপ্নই পূরণ হল। বিজেপিতে যোগ দিয়ে সোমবার এই কথাই জানালেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জৈল সিংয়ের নাতি ইন্দ্রজিৎ সিং। সামনের বছরই পঞ্জাবে বিধানসভা ভোট। সেই ভোটে কংগ্রেস-বিরোধী প্রচারে ইন্দ্রজিৎকে গেরুয়া শিবির ব্যবহার করতে পারে বলেই ওয়াকিবহাল মহলের মত।

এদিন নয়াদিল্লিতে বিজেপি সদর দফতরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরীর হাত থেকে গেরুয়া পতাকা তুলে নেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নাতি। বিজেপিতে যোগদান করে ইন্দ্রজিৎ সিং জানান, ‘‌দাদু চেয়েছিলেন আমি যাতে রাজনীতিতে যোগ দিই। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর সঙ্গেও আমায় দেখা করতে বলেছিলেন। কিন্তু আমি সিনেমায় কেরিয়ার প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলাম। তখন অবশ্য সক্রিয়ভাবে রাজনীতি না করে বিজেপির হয়ে প্রচারে নামেন।’‌ একইসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌দাদু মারা যাওয়ার পর পঞ্জাবে ফিরে আসি ও বিশ্বকর্মা সমাজের জন্য কাজ শুরু করি।’‌ এদিন ইন্দ্রজিৎ জানান, কংগ্রেসের প্রতি আনুগত্য থাকা সত্বেও তাঁর প্রতি যে ব্যবহার করা হয়েছে, তা সকলেরই জানা। উল্লেখ্য, ইন্দ্রজিতের দাদু জৈল সিং ১৯৮২ থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত ভারতের রাষ্ট্রপতি ছিলেন।

এদিন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নাতির ভূয়সী প্রশংসা করতে দেখা যায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরীকে। পঞ্জাবে অমরিন্দর সিং সরকারের বিরোধিতা করতে যাতে সকলে এগিয়ে আসে, সেই আহ্বানও জানান তিনি। উল্লেখ্য, পঞ্জাবে বিধানসভা ভোটের আগে কংগ্রেস শিবিরে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের সঙ্গে কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধুর দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। সিধুর বিরুদ্ধে টুইটে সরব হয়েছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী। তবে ভোটের আগে দু'জনের মধ্যে যাতে সংঘাত না হয়, সেই পরামর্শই দিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। ‌কংগ্রেসের মধ্যে এই দ্বন্দ্ব ভোটের বাক্সে প্রভাব ফেলতে পারে, সেই কথা আন্দাজ করেই এখন থেকে রণকৌশল সাজাচ্ছে বিজেপি, এমনটাই রাজনৈতিক মহলের মত।

বন্ধ করুন