বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আগামী ৫ মাসে ইসরোর ৪টি উত্ক্ষেপণ, পিছিয়ে গেল গগনযান : কেন্দ্র
শ্রীহরিকোটায় গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রাজিলের আর্থ অবজারভেশন স্যাটেলাইটসহ ১৮টি কৃত্রিম উপগ্রহের উত্ক্ষেপণ হয়েছিল। ছবি : এএনআই (ANI)

আগামী ৫ মাসে ইসরোর ৪টি উত্ক্ষেপণ, পিছিয়ে গেল গগনযান : কেন্দ্র

গত বছর করোনার প্রথম ঢেউয়ের পরেই ইসরোর একটি কমিটি আলোচনায় বসেছিল। তাতেই আসন্ন অভিযানগুলিকে রিশিডিউল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

আগামী ৫ মাসে ৪টি উত্ক্ষেপণ অভিযান রয়েছে ইসরোর। এর মধ্যে নতুন একটি ক্ষুদ্র উপগ্রহ উত্ক্ষেপণ যানও রয়েছে। তবে গগনযানের প্রথম মানুষহীন ট্রায়াল পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। লোকসভায় এমনটাই জানাল কেন্দ্র।

করোনার দ্বিতীয় ওয়েভের কারণে প্রায় প্রতিটি অভিযানের শিডিউল নতুন করে সাজাতে হয়েছে ইসরোকে। তার আগে, ২০২১ সালের ডিসেম্বরেই গগনযানের প্রথম মানুষহীন লঞ্চের কথা ছিল।

লোকসভায় কেন্দ্র জানিয়েছে, আসন্ন চারটি লঞ্চের মধ্যে তিনটিতে ভারতের পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেলস (PSLV) ব্যবহার করা হবে। চারটি মিশনেই পৃথিবী পর্যবেক্ষণকারী উপগ্রহ পাঠানো হবে। অন্যান্য বিভিন্ন কাজ ছাড়াও কৃষি কার্যক্রম এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগ পর্যবেক্ষণের জন্য এগুলি ব্যবহৃত হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আধিকারিক জানিয়েছেন, 'বর্তমান পরিস্থিতিতে লোক কম। যন্ত্রাদি স্থানান্তরও কঠিন। ফলে আপাতত বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান নির্ভর অভিযানগুলি পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। বরং ব্যবসায়িক যে ঠিকাগুলি রয়েছে, সেই স্যাটেলাইটগুলিই আগে উত্ক্ষেপণ করা হচ্ছে। আমরা লঞ্চ না করলে অন্য কোনও মহাকাশ সংস্থার কাছে চলে যাবে গ্রাহকরা।'

করোনা পরিস্থিতির পর থেকে এখনও পর্যন্ত তিনটি PSLV অভিযান হয়েছে। একটি হল ২০২০-র নভেম্বরে EOS-1 আর্থ অবজার্ভেশন স্যাটেলাইট মিশন। তারপর ডিসেম্বর মাসে CMS-1 কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট মিশন। তৃতীয়টি ব্রাজিলের আর্থ অবজারভেশন স্যাটেলাইটের উত্ক্ষেপণ, ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে।

গত বছর করোনার প্রথম ঢেউয়ের পরেই ইসরোর একটি কমিটি আলোচনায় বসেছিল। তাতেই আসন্ন অভিযানগুলিকে রিশিডিউল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

বন্ধ করুন