বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শিক্ষিকা থেকে IT কর্মী! এবার শেয়ার বাজারে কোটি-কোটি টাকা আয় বর্ধমানের কবিতার

শিক্ষিকা থেকে IT কর্মী! এবার শেয়ার বাজারে কোটি-কোটি টাকা আয় বর্ধমানের কবিতার

ফাইল ছবি: মিন্ট (Mint)

চাকরি পেয়ে জীবন কিছুটা থিতু হতেই তাই শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের পদ্ধতি শিখতে শুরু করেন কবিতা। আজ, কবিতার পোর্টফোলিওর মূল্য ২ কোটি টাকারও বেশি। গত ১১ বছরে তিনি শুধু শেয়ার বাজারের বিভিন্ন দিক বুঝেছেন তা নয়, রীতিমতো বিশেষজ্ঞ হয়ে গিয়েছেন।

প্রায় এগারো বছর আগের কথা। এক আইটি সংস্থায় ৩০ হাজার টাকা বেতনের চাকরি করতেন বর্ধমানের কবিতা। নিরাপদ কেরিয়ার, নিশ্চিন্ত জীবন। আর পাঁচজন ইঞ্জিনিয়ারের মতোই চাকরি করেই জীবন কাটিয়ে দিতে পারতেন। কিন্তু কবিতার ঝোঁক ছিল অন্য কোথাও। ভারতীয় শেয়ার বাজার নিয়ে তাঁর অনেক আগে থেকেই আগ্রহ ছিল। কিন্তু সত্যি বলতে সেভাবে শেয়ার বাজারের মারপ্যাঁচ বুঝতেন না। চাকরি পেয়ে জীবন কিছুটা থিতু হতেই তাই শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের পদ্ধতি শিখতে শুরু করেন তিনি। আজ, কবিতার পোর্টফোলিওর মূল্য ২ কোটি টাকারও বেশি। গত ১১ বছরে তিনি শুধু শেয়ার বাজারের বিভিন্ন দিক বুঝেছেন তা নয়, রীতিমতো বিশেষজ্ঞ হয়ে গিয়েছেন।

পেশা হিসাবে স্টক এক্সচেঞ্জে বিনিয়োগ যে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ, তা বলাই বাহুল্য। বিশেষ করে ফিউচার এবং অপশনস ট্রেডিং। কিন্তু, এরই মধ্যে এমন কয়েকজন আছেন, যাঁরা এর রহস্যও ক্র্যাক করে ফেলেন। চাকরি করতে করতেই ট্রেডিংয়ের কারবার চালিয়ে যান তাঁরা। কবিতা বর্তমানে একটি অস্ট্রেলীয় আইটি সংস্থায় কাজ করেন। কিন্তু কাজের বাইরে তাঁর একটাই ধ্যান ও জ্ঞান- অপশনস ট্রেডিং।

কবিতা জানান, তিনি খুব অল্প বয়সেই টাকা উপার্জনের মূল্য এবং তা সঞ্চয় করার পদ্ধতিটা শিখে ফেলেন। ছোট থেকেই উজ্জ্বল ছাত্রী ছিলেন। মাত্র ১৪ বছর বয়সে টিউশন করা শুরু করেন। সেই সময়েই পড়ুয়া পিছু ২৫০ টাকা করে বেতন পেতেন।

কলেজে উঠেও টিউশনি করতেন কবিতা। ছোটোবেলা থেকেই ক্লাসে ফার্স্ট হতেন। তা সত্ত্বেও, কবিতাকে নিজের শহরের কাছের কলেজে ভর্তি হতে হয়েছিল। তিনি বলেন, তাঁর বাবা হস্টেলের খরচ দিতে পারতেন না। প্রতিদিন তিন ঘণ্টা বাসে যাতায়াত করতেন। সন্ধ্যায় বাড়িতে আসার পর কবিতা রাত ৯টা পর্যন্ত টিউশনি করতেন। তিনি জানান, এই আয়ই তাঁকে ধীরে ধীরে স্বাবলম্বী হওয়া ও টাকা উপার্জনের গুরুত্ব বোঝাতে শুরু করে।

কলেজ শেষে পুণেতে এক আইটি সংস্থায় প্রথম চাকরি পান তিনি। আর সেই চাকরি করতে গিয়েই এক সহকর্মীকে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করতে দেখেন। শেয়ার বাজারের নাম শুনলেও, সেখানে কীভাবে বিনিয়োগ করা হয়, সেটা জানতেন না তিনি। এ বিষয়ে একটু পড়াশোনা করতেই তাঁর আগ্রহ বেড়ে যায়। ক্রমেই শেয়ার বাজারের জ্ঞানের জগতে হারিয়ে যান। আর সেই জ্ঞানের থেকেই আসে সাহস।

এরপর অল্প অল্প টাকা নিয়ে কবিতা ইন্ট্রাডে ট্রেডিং শুরু করেন। প্রাথমিক পর্যায়ে দিন ২০০-৪০০ টাকা লাভ হত। বেশ কয়েকদিন এভাবে চলার পরেই সাহস আসে। একটি পোর্টফোলিও তৈরি করার জন্য ৩ লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত ঋণ নেন। সহকর্মীকে ক্যারিয়ার পয়েন্ট আইপিও-তে অ্যাপ্লাই করতে দেখে তিনিও সেখানে বিনিয়োগ করেন। এই একটি সিদ্ধান্তেই তাঁর জীবনকে পালটে দেয়।

কবিতা জানান, তিনি যে শেয়ার বাজারে টাকা খাটাচ্ছেন, তা বাড়িতে বলেননি। বাড়িতে যখন ঋণের চিঠি পৌঁছলো, বাবা-মা রেগে কাঁই! আর পাঁচটা নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারের মতোই তাঁরা শেয়ার বাজার মানেই ফাটকা ভাবতেন। জুয়ার মতোই আরকি! ফলে সেখানে ঋণ নিয়ে বিনিয়োগে ওঁরা মোটেও খুশি ছিলেন না।

কিন্তু কবিতা তাঁর পোর্টফোলিও খুলে দেখাতেই চক্ষু ছানাবড়া হয়ে যায় তাঁদের। মোট ২০ লক্ষ টাকার শেয়ার কবিতার নামে! এরপরে অবশ্য তাঁকে আর বাধা দেননি কবিতার মা-বাবা।

টাকা আয়ের মতো হারিয়েছেনও অনেক। কোনওদিন এমনও গিয়েছে যে ৮ লক্ষ টাকার লোকসান হয়েছে। কিন্তু প্রতিটা লোকসান থেকে শিক্ষা নিয়েছেন তিনি। আর তার থেকেই আরও বেশি করে টাকা পুনরূদ্ধারের পদ্ধতি শিখেছেন কবিতা। আপাতত মূলত সাপ্তাহিক এবং মাসিক সাপ্তাহিক অপশনে ট্রেড করেন কবিতা।

ট্রেডিংয়ে আজ তুমুল সফল তিনি। একদিনে ১৪ লক্ষ টাকাও পর্যন্ত আয় করেছেন। কিন্তু এরপরেও শুধু স্টক মার্কেটকেই পেশা করার বিরুদ্ধে কবিতা। তাঁর মতে, একটি স্থায়ী চাকরি থাকা সবসময়েই গুরুত্বপূর্ণ।

যারা শেয়ার বাজারে নতুন নামছেন, তাঁদের কী বলবেন?

  • যতক্ষণ না আপনি স্টক মার্কেটে বিনিয়োগের জন্য যথেষ্ট তহবিল, জ্ঞান এবং আত্মবিশ্বাস তৈরি হচ্ছে, ততদিন পড়াশোনা চালিয়ে যান। চাকরি করতে থাকুন। টাকা জমিয়ে মূলধন তৈরি করুন।
  • একবারে সব টাকা বিনিয়োগ করবেন না। ছোট ছোট ভাগ করে বিনিয়োগ করা শুরু করুন। ধরুন কারও কাছে মোট ১০ লক্ষ টাকা আছে। প্রথমেই পুরো টাকা ঢালবেন না। ৫০ হাজার টাকা বা ১ লক্ষ টাকা নিয়ে শুরু করুন।
  • কবিতা জানন তাঁর সাফল্যের মূল মন্ত্র হল লাগাতার পড়াশোনা ও শৃঙ্খলা মেনে বিনিয়োগ করা।

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

ভোট মিটলেই বিয়ে তৃণমূলের দেবাংশুর? প্রেমিকার সত্যি ফাঁস করলেন ‘খেলা হবে’র জনক খিদে পেত না,রাতে ঘুম হত না,ওজন কমে যাচ্ছিল- অবসাদের কারণেই ৩১ বছরেই অবসর নেন মেগ প্রেমের দিক থেকে কাদের জন্য আজকের দিনটি ভালো নয়? দেখুন আজকের প্রেম রাশিফল কোচবিহারে জওয়ানের অস্বাভাবিক মৃত্যু, ভোটকেন্দ্রেই নাকে-মুখে উঠেছিল রক্ত ফর্সা হতে গিয়ে কিডনির ক্ষতি করছেন না তো? ফেয়ারনেস ক্রিম ব্যবহারের আগে সাবধান বেগুনি টুপির মালিক বুমরাহ,বড় লাফ কোয়েটজিয়ার,কমলা ক্যাপের লিস্টে ৩-এ উঠলেন রোহিত PBKS vs MI: IPL-এর ইতিহাসে এত বছরে যা হয়নি সেটাই হল এবার! ক্যামেরা দেখাল টসের স ধনু-মকর-কুম্ভ-মীনের শুক্রবার কেমন কাটবে? জানুন রাশিফল মাদক মামলা থেকে আরিয়ানকে ক্লিনচিট দেওয়া সঞ্জয় সিং নিলেন স্বেচ্ছাবসর LIVE Lok Sabha Vote: ১০২ আসনে চলছে ভোট, ভোটারদের উদ্দেশে বাংলায় X বার্তা মোদীর

Latest IPL News

PBKS vs MI: IPL-এর ইতিহাসে এত বছরে যা হয়নি সেটাই হল এবার! ক্যামেরা দেখাল টসের স কাজে এল না আশুতোষ-শশাঙ্কের লড়াই, রোমাঞ্চকর ম্যাচে পঞ্জাবকে ৯ রানে হারাল মুম্বই বুমরাহের ইনসুইং ইয়র্কার বুঝতেই পারলেন না রসউ, উপড়ে গেল দু'টি স্টাম্প- ভিডিয়ো তখন আমি কিছুটা ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম- MI vs RR ম্যাচের স্মৃতি ভুলতে পারছেন না রোহিত আমরা চাই ধোনি শেষ বলে ছক্কা মারুক কিন্তু… লখনউয়ের রাস্তায় LSG-র প্রার্থনা ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য কী করেছেন? CSK-র সমালোচনা করতেই প্রাক্তনীর রোষে হর্ষ ভোগলে সেদিন আটকে গেলাম না হলে... ODI World Cup 2023 ফাইনাল নিয়ে আক্ষেপ করছেন রাহুল IPL 2024: দুবে, ওয়াশিংটনরা বলই পাচ্ছেন না- হঠাৎ কেন চিন্তায় পড়লেন রোহিত শর্মা T20 WC-এর ১৫ জনের দলে হার্দিক থাকবেনই, তবে রিঙ্কুর জায়গা নিশ্চিত নয়- রিপোর্ট MI: আসলে আমি জানি IPL-এ কীভাবে সাফল্য পাওয়া যায়- কেন এমন বললেন রোহিত শর্মা?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.