ফাইল  (MINT_PRINT)
ফাইল (MINT_PRINT)

Tax Return, Investment Proof, GST- কী কী ক্ষেত্রে সময়সীমা বৃদ্ধি ৩০ জুন অবধি?

করোনার জেরে গ্রাহকদের ওপর বোঝা কমিয়েছে অর্থমন্ত্রক

করোনাভাইরাসের জেরে বেহাল অর্থনীতি। ১৪ এপ্রিল অবধি দেশব্যাপী লকডাউন চলছে ভাইরাসের প্রকোপ রোধে। এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে বেশ কিছু ডেডলাইন পিছিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ৩১ মার্চ সেই সংক্রান্ত অর্ডিন্যা্ন্সও জারি করা হয়েছে। ডিরেক্ট ও ইনডিরেক্ট ট্যাক্স, উভয় ক্ষেত্রেই সরকার সময়সীমা শিথিল করেছে।

এক নজরে দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা-

১. ২০১৮-১৮ সালের ইনকাম ট্যাক্স (অরিজিনাল ও রিভাইসড) পিছিয়ে ৩০ জুন হয়ে গিয়েছে।

২. আধার-প্যান সংযুক্তীকরণের শেষদিন পিছিয়ে গিয়েছে ৩০ জুন অবধি।

৩. ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে কর ছাড়ের জন্য যে ইনভেস্টমেন্ট করতে হত, তার শেষদিন বাড়িয়ে ৩০ জুন করা হয়েছে।

৪. ক্যাপিটাল গেইনসের ওপর রোলওভার বেনিফিট, ডিডাকশনের জন্য ইনভেস্টমেন্টের সময়সীমা বেড়ে ৩০ জুন হয়েছে। অর্থাত্ ওদিন অবধি যা ইনভেস্টমেন্ট করা হবে, সেটি ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের ক্যাপিটাল গেইনসের ওপর ডিডাকশন হিসাবে দেখানো যেতে পারে।

৫. যেসব SEZ ইউনিট আইটি অ্যাক্টের 10AA অনুযায়ী ছাড় চায়, তাদের কাজ শুরু করার ডেডলাইন বাড়িয়ে ৩০ জুন করা হল, যদি মার্চের মধ্যে সমস্ত পেপারওয়ার্ক হয়ে থেকে থাকে।

৬.কর অনাদায়ে ১২ শতাংশের জায়গায় নয় শতাংশ করে সুদ নেওয়া হবে, যদি ৩০ জুনের মধ্যে সমস্ত টাকা মিটিয়ে দেওয়া হয়। কোনও অতিরিক্ত জরিমানা নেওয়া হবে না।

৭. বকেয়া কর মেটানোর জন্য বিবাদ সে বিশ্বাস প্রকল্পের মেয়াদ ৩০ জুন অবধি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

অপ্রত্যক্ষ কর-

১. মার্চ, এপ্রিল ও মে-এর জন্য সেন্ট্রাল এক্সাইজ রিটার্ন ৩০ জুনের মধ্যে দিতে হবে।

২. জিএসটি রিটার্ন দেওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি হয়েছে ৩০ জুন অবধি।

৩. Sabka Vishwas Legal Dispute Resolution Scheme 2019-এর আওতায় টাকা দেওয়ার শেষদিন বৃদ্ধি করা হয়েছে।


বন্ধ করুন