বাড়ি > ঘরে বাইরে > শরিকদের অসত্য কথায় লাভ হবে না - মোদীর চিন সীমান্ত পেরোয়নি উক্তি প্রসঙ্গে মনমোহন
মনমোহন সিং  (PTI)
মনমোহন সিং  (PTI)

শরিকদের অসত্য কথায় লাভ হবে না - মোদীর চিন সীমান্ত পেরোয়নি উক্তি প্রসঙ্গে মনমোহন

চিন যেন এর সুযোগ না নিতে পারে, সেই নিয়ে সতর্ক করলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। 

চিন সীমান্ত পেরোয়নি, সর্বদলীয় বৈঠকে মোদীর এই মন্তব্যকে এক হাত নিলেন এবার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। গত শুক্রবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পর থেকেই তাঁকে তীব্র আক্রমণ করেছেন শীর্ষস্থানীয় কংগ্রেস নেতারা। এবার সেই লিস্টে নাম জুড়ল মনমোহনের। 

লাদাখের গালওয়ানে দেশের জন্য যে ২০জন সৈনিক প্রাণ বলিদান করেছেন, সেই আত্মত্যাগ যেন বৃথা না হয়ে যায়, সেই কথা বলেন মনমোহন সিং। মোদীকে তিনি বলেন যে সৈনিকরা যাতে বিচার পান ও দেশের সার্বভৌমত্ব যাতে বজায় থাকে, তা নিশ্চিত করতে হবে। সেটা না করলে মানুষের আস্থার সঙ্গে ঐতিহাসিক বিশ্বাসঘাতকতা হবে বলে তিনি মনে করেন। 

তিনি বলেন এপ্রিল থেকে অনুপ্রবেশ করে চিন গালওয়ান ও প্যাংগংয়ের ভূখণ্ড দখল করে নেওয়ার চেষ্টা করছে। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বলেন যে ভয় ও হুমকিতে দমে যাওয়া উচিত নয়। একই সঙ্গে অখণ্ডতার প্রশ্নে কোনও আপোষ করাও সম্ভব নয় বলেই তিনি জানান। 

পরিস্থিতির গুরুত্ব বোঝাতে মনমোহন বলেন ভবিষ্যত প্রজন্ম কী চোখে আমাদের দেখবে, সেটা নির্ভর করছে সরকারের নেওয়ার সিদ্ধান্তের ওপর। গণতন্ত্রে পুরো দায়টি প্রধানমন্ত্রীর বলেও মনে করিয়ে দেন তিনি।  মোদীকে যে তাঁর কথা ও জাতীয় সুরক্ষা ও অখণ্ডতা সম্পর্কিত সিদ্ধান্তের কী প্রভাব হতে পারে, সেই নিয়ে সম্যক ধারণা রাখার পরামর্শ দেন মনমোহন। 

সরাসরি মোদীর ওই সীমান্ত উক্তির প্রসঙ্গ না উল্লেখ করলেও মনমোহন বলেন যে প্রধানমন্ত্রীকে এটা নিশ্চিত করতে হবে যা তাঁর বলা কথা যেন চিন নিজেদের স্বার্থে লাগাতে পারে। সরকারের সব অংশের একসঙ্গে এই সঙ্কট নিরসনে ঝাঁপিয়ে পড়া উচিত।

 শেষে মনমোহন মোদীকে তীব্র আক্রমণ করে বলেন যে সরকারের মাথায় রাখা উচিত ভুল তথ্য কখনো কুটনীতি বা নেতৃত্বের বিকল্প হতে পারে না। যেভাবে মোদীর পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন কেসিআর, জগন রেড্ডি ইত্যাদি, সেই প্রসঙ্গে মনমোহন বলেন যে হাতের মুঠোয়া থাকা শরিকদলদের দিয়ে মিথ্যা বিবৃতি দিয়ে সত্যিটা লুকোনো যায় না। 

 

বন্ধ করুন