বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Gas Cylinder Subsidy: 'শতকের সবচেয়ে বড় প্রতারণা'- ২০২০ মে থেকে বন্ধ গ্যাস ভর্তুকি, দাবি কেরলের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর

Gas Cylinder Subsidy: 'শতকের সবচেয়ে বড় প্রতারণা'- ২০২০ মে থেকে বন্ধ গ্যাস ভর্তুকি, দাবি কেরলের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর

আইস্যাক থমাস। ছবি সৌজন্য টুইটার।

দেশে গত ৮ মার্চ এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ৫০ টাকা বেড়ে গিয়েছিল। তারপর সদ্য মে মাসে তা ফের বাড়ল। এদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম ব্যারেল পিছু ১০০ ডলারের উপরে চলে গিয়েছে। সেই জায়গা থেকে তেলের দামের বৃদ্ধির মাঝেই ভর্তুকি নিয়ে সরব হয়েছেন কেরলের এই বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ।

মধ্যবিত্তের হেঁশেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে বেড়েছে গ্যাসের দাম। ১৪.২ কেজির রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম সদ্য ৫০ টাকা করে বেড়েছে। ফলে নাভিশ্বাস উঠেছে মধ্যবিত্তের ঘরে। শহর কলকাতায় গ্যাসের দাম ছাড়িয়েছে ১০০০ টাকা। এমন পরিস্থিতিতে, মুখ খুলেছেন দেশের অন্যতম অর্থনীতিবিদ তথা কেরলের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী আইস্যাক থমাস। ভর্তুকির অঙ্কের খতিয়ান নিয়ে তিনি দাবি তুলেছেন এক 'ষড়যন্ত্র'এর।

এক টুইট পোস্টে কেরলের এই প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী লিখেছেন, 'গ্যাসের গ্রাহকদের ভর্তুকি সরাসরি পৌঁছে দেওয়া হল আসলে একটি চাল ভর্তুকিকে উঠিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে।' একইসঙ্গে তিনি তাঁর টুইটে লিখেছেন,'২০২০ সালের মে মাস থেকে কোনও ভর্তুকিই ঘোষণা করা হয়নি। যার ফলে আমদানী মূল্য বেড়েছে, যার জেরে ২০১৮ সালে ৪০০ টাকা থেকে বর্তমানে গ্যাস হয়েছে ১০০০ টাকা।' গোটা ঘটনাকে তিনি প্রতারণা বলে দাবি করেছেন। ভারতীয় মুদ্রার দাম যখন ক্রমেই কমতে শুরু করেছে, সেই সময়ই বাম শাসিত কেরলের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর তরফে এই বার্তা নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে নেট মহলে। ভিন দেশের এই স্কুলে রবীন্দ্রভাবনায় ভেদাভেদ ভুলে চলে পঠনপাঠন! নেপথ্যে কোন ইতিহাস?

এদিকে, দেশে গত ৮ মার্চ এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ৫০ টাকা বেড়ে গিয়েছিল। তারপর সদ্য মে মাসে তা ফের বাড়ল। এদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম ব্যারেল পিছু ১০০ ডলারের উপরে চলে গিয়েছে। সেই জায়গা থেকে তেলের দামের বৃদ্ধির মাঝেই ভর্তুকি নিয়ে সরব হয়েছেন কেরলের এই বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ। তাঁর তীরের নিশানায় যে মোদী সরকারই রয়েছে, তা বলাই বাহুল্য।

 

বন্ধ করুন