বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতে এসে পুতিন বন্দনার জের, পদ ছাড়তে হল জার্মান নৌসেনা প্রধানকে
পদ ছাড়তে হল জার্মান নৌসেনা প্রধানকে (ছবি সৌজন্যে এএআই)
পদ ছাড়তে হল জার্মান নৌসেনা প্রধানকে (ছবি সৌজন্যে এএআই)

ভারতে এসে পুতিন বন্দনার জের, পদ ছাড়তে হল জার্মান নৌসেনা প্রধানকে

  • দিল্লিতে একটি থিঙ্কট্যাঙ্কের বৈঠকে শোয়েনবাখ মন্তব্য করেছিলেন যে চলমান ইউক্রেন সংকটের মাঝেও পুতিনের সম্মান প্রাপ্য।

জার্মান নৌবাহিনীর প্রধান কে-আচিম শোয়েনবাখ পদত্যাগ করলেন নিজের পদ থেকে। গত শুক্রবার নয়াদিল্লিতে একটি থিঙ্ক-ট্যাঙ্কের বৈঠকে শোয়েনবাখ মন্তব্য করেছিলেন যে চলমান ইউক্রেন সংকটের মাঝেও পুতিনের সম্মান প্রাপ্য। ইউক্রেন ঘিরে যখন রাশিয়া ও পশ্চিমা দেশগুলির সংঘাত চরমে, তখন জার্মান নৌসেনার প্রধানের এহেন মন্তব্য ভালো চোখে দেখেননি কেউই। এই পরিস্থিতিতে তিনি চাপের মুখে পদ ছাড়লেন।

শোয়েনবাখ দিল্লিতে মন্তব্য করেছিলেন যে ‘পুতিন যে সম্মান চা তাঁকে দেওয়া খুবই সহজ, এবং এটা তাঁর প্রাপ্যও বটে।’ জার্মানি প্রাক্তন নৌসেনা প্রধান আরও বলেছিলেন, ‘২০১৪ সালে রাশিয়ার দখলে চলে যাওয়া ক্রাইমিয়া কোনওদিনই ইউক্রেনে ফিরবে না।’ যদিও পরে বিতর্কে জল ঢালতে শোয়েনবাখ দাবি করেছিলেন, ‘আমার মন্তব্যগুলি একান্তই ব্যক্তিগত এবং সরকারের দঋষ্টিভঙ্গির সঙ্গে এর কোনও সামঞ্জস্য নেই।’

তবে শনিবারই ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রী কিয়েভে জার্মানির রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছিলেন শোয়েনবাখের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে। ইউক্রেনের তরফে বলা হয়, পুতিনকে নিয়ে করা নৌসেনা প্রধানের মন্তব্য স্পষ্টভাবে অগ্রহণযোগ্য এবং তারা এর প্রতিবাদ করছে। এরপরে শোয়েনবাখ এক টুইট করে লেখেন, ‘জার্মানী নৌবাহিনীর এবং জার্মান ফেডারেল রিপাবলিকের ভাবমূর্তিতে কোনও ক্ষতি এড়াতে আমি পদত্যাগ করছি।’

বন্ধ করুন