বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ২০০ কোটি টাকা পর্যন্ত সরকারি টেন্ডারে ডাক পাবে না আন্তর্জাতিক সংস্থা
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

২০০ কোটি টাকা পর্যন্ত সরকারি টেন্ডারে ডাক পাবে না আন্তর্জাতিক সংস্থা

  • ক্ষুদ্র, ছোটো এবং মাঝারি শিল্পে যুক্ত সংস্থগুলিকে বাড়তি সুযোগ দেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে নর্থ ব্লকের তরফে জানানো হয়েছে।

‘আত্মনির্ভর ভারত’ গড়ার ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই আহ্বানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নয়া ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক। জানানো হল, সরকারি প্রকল্পের টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারবে না কোনও আন্তর্জাতিক সংস্থা। তবে ২০০ কোটি টাকা বেশি অর্থের টেন্ডারে অংশ নিতে ওই সংস্থাগুলির কোনও বাধা থাকবে না।

রবিবার সেই সংক্রান্ত নিয়মের সংশোধন করেছে অর্থ মন্ত্রক। পরে একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘(কেন্দ্রীয়) মন্ত্রিসভার সচিবালয়ের পূর্ব অনুমোদন ছাড়া এবার থেকে ২০০ কোটি টাকা পর্যন্ত টেন্ডারের ক্ষেত্রে কোনও গ্লোবাল টেন্ডার এনকোয়ারিকে (জিটিই) আমন্ত্রণ জানানো হবে না।’ ক্ষুদ্র, ছোটো এবং মাঝারি শিল্পে যুক্ত সংস্থগুলিকে বাড়তি সুযোগ দেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে নর্থ ব্লকের তরফে জানানো হয়েছে।

অর্থ এবং বাণিজ্য মন্ত্রকের জন্য বিভিন্ন যে প্যাকেজের ঘোষণা করা হয়েছে, তার রূপায়ণের কাজ পর্যালোচনা করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তারপরই অর্থ মন্ত্রকের তরফে সেই বিবৃতি জারি করা হয়েছে।

পাশাপাশি রাজ্যস্তরে নির্দিষ্ট সংস্কার রূপায়ণের ভিত্তিতে চলতি অর্থবর্ষের মোট ঘরোয়া উৎপাদনের ২ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তি ঋণ নেওয়ার বিষয়ে রাজ্যগুলিকে সরকারিভাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে ক্ষুদ্র, ছোটো এবং মাঝারি শিল্প-সহ অন্যান্য ব্যবসার জন্য তিন লাখ টাকার যে কোলাটেরাল-ফ্রি ঋণ (কোনও গ্যারান্টি ছাড়া ঋণ) দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছিল, সেই মোতাবেক ১.২ লাখ কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ৬১,৯৮৭ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে অর্থ মন্ত্রক।

একইসঙ্গে ঠিকাদার সংস্থাদের সুবিধা দিতে কাজ শেষ করার জন্য বাড়তি ছ'মাস সময় দেওয়ার জন্য রেল, সড়ক পরিবহন মন্ত্রকের মতো কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে ডিপার্টমেন্ট অফ এক্সপেনডিচার।

বন্ধ করুন