বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভিড বিধি অমান্য করে বর্ষবরণে হুল্লোড়, কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে গোয়া সরকার
নিউ ইয়ার্স ইভ উপলক্ষে পার্টিতে সামাজিক দূরত্ববিধি শিকেয় তোলা হয়েছে বলে অভিযোগ গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর।
নিউ ইয়ার্স ইভ উপলক্ষে পার্টিতে সামাজিক দূরত্ববিধি শিকেয় তোলা হয়েছে বলে অভিযোগ গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর।

কোভিড বিধি অমান্য করে বর্ষবরণে হুল্লোড়, কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে গোয়া সরকার

  • নিউ ইয়ার্স ইভ উপলক্ষে পার্টিতে সামাজিক দূরত্ববিধি শিকেয় তোলা হয়েছে বলে শনিবার আক্ষেপ করেছেন গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

যে সমস্ত হোটেল এবং অন্যান্য পর্যটন কেন্দ্র কোভিড নীতি অনুসরণ করছে না, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চলেছে গোয়া সরকার, জানিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিশ্বজিৎ রানে।

গত নিউ ইয়ার্স ইভ উপলক্ষে পার্টিতে সামাজিক দূরত্ববিধি শিকেয় তোলা হয়েছে বলে শনিবার আক্ষেপ করেছেন গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী। যাঁরা যাঁরা বিধিভঙ্গ করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে রাজ্যের শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা প্রয়োজন বলেও তিনি জানিয়েছেন। 

শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে মন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে হয়, রাজ্য হিসেবে আমাদের আরও সতর্ক থাকা দরকার। আমরা গোয়ার মানুষ নিরাপদ থাকুন, তাই চাই। আমরা চাই রাজ্যে বাণিজ্যিক উদ্যোগ চালু ও স্থায়ী হোক। পর্যটকদের মনে রাখতে হবে যে মাস্ক ব্যবহার এবং সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলতে হবে। কোভিড নীতি অমান্য করার জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট হোটেল ও ক্লাবগুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেব।’

নববর্ষের আগের রাতে শেষ মুহূর্তে গোয়ায় কারফিউ জারি করেন রানে, যার জেরে রাজ্যের বিভিন্ন হোটেল ও ক্লাব আয়োজিত অনুষ্ঠানসূচি প্রায় ভেস্তে যায়। তবে রানের আরোপ করা কারফিউ পরে রদ করে দেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত। তিনি জানান, রাতে কারফিউ জারি করা না হলেও সমস্ত কোভিডবিধি মেনে চলা আবশ্যিক হবে। 

রাজ্যজুড়ে নিউ ইয়ার্স ইভ পার্টির বিভিন্ন সমাবেশে অবশ্য কোভিড বিধি শিকেয় তুলে অবাধে মেলামেশা করতে দেখা গিয়েছে উৎসাহী জনতাকে। যার জেরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মন্তব্য করেন, ‘পর্যটকদের মনে রাখা দরকার যে, এখানে তাঁর আনন্দ করতে আসছেন। কিন্তু তাঁদের কিছু দায়িত্ব রয়েছে। বিমানবন্দরে মাত্র ৬০ শতাংশ যাত্রীকে মাস্ক পরতে দেখা গিয়েছে। গোয়া কিন্তু যা খুশি তাই করার রাজ্য নয়।’

রানে বলেন, ‘জোড়হাতে পর্যটক ও গোয়ার বাসিন্দাদের কাছে অনুরোধ করছি, দয়া করে মাস্ক পরুন। আমরা চাই আপনারা গোয়াকে উপভোগ করুন ও সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলুন। সরকারের উচিত সৈকত সমাবেশের উপরে জরিমানা মাথাপিছু ৫০০ টাকা করা। এ সব মানুষ কখনই বুঝবে না। আমরা চাই গোয়া সেরা পর্যটন আকর্ষণ হয়ে উঠুক। বলছি না সৈকতে যাবেন না। সৈকতে যান, কিন্তু সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলুন।’

এর পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পূর্বাভাস, ‘দুঃখিত, এবার সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাবে, এবং তা নিয়ন্ত্রণ করাও সম্ভব হবে না। একমাত্র সঠিক সময়ে জানালে আমরা হিসেব রাখতে পারব।’

পরিসংখ্যান বলছে, গোয়ায় বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ১০০ জন নতুন কোভিড রোগীর সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে। গত সেপ্টেম্বর মাসে এই সংখ্যা ছিল ৫০০।

বন্ধ করুন