প্রতি বছরের মতো এবার অক্ষয় তৃতীয়ায় দেশজুড়ে সোনার বিপুল চাহিদায় ভাটা পড়েছে।
প্রতি বছরের মতো এবার অক্ষয় তৃতীয়ায় দেশজুড়ে সোনার বিপুল চাহিদায় ভাটা পড়েছে।

আরও বাড়ল সোনার দাম, যদিও ছন্দে নেই অক্ষয় তৃতীয়ার বাজার

  • বিশ্বজুড়ে আর্থিক পরিস্থিতি সামাল দিতে যে সমস্ত সংস্কারমূলক পদক্ষেপ করা হচ্ছে, তার জোরেই সোনার দামে রেকর্ড পতনের সম্ভাবনা নেই।

দামের উত্থান দেখা দিয়েছিল মঙ্গলবার। বুধবার আরও ১% উঠল সোনার দাম। এমসিএক্স জুন গোল্ড ফিচার্স-এর দর অনুযায়ী এ দিন ভারতে খাঁটি সোনার (২৪ ক্যারাট) দাম দেশীয় বাজারে প্রতি ১০ গ্রামে দাঁড়াল ৪৫,৭৬৮ টাকা।

গত সপ্তাহের প্রথম ভাগে সোনার দাম রেকর্ড পরিমাণে বেড়ে প্রতি ১০ গ্রামে ওঠে ৪৭,০০০ টাকা। তবে সপ্তাহের শেষ দিকে লাগাতার পতন হয় দামে।

পাশাপাশি, এ দিন দেশীয় বাজারে ০.৩৫% পতন হয় রুপোর দামে। যার ফলে প্রতি কেজি রুপোর দাম দাঁড়ায় ৪১,৬০২ টাকায

আন্তর্জাতিক বাজারে এ দিন সোনার দামে বিশেষ নড়চড় দেখা যায়নি, যদিও ডলার যথেষ্ট মজবুত অবস্থান ধরে রেখেছে। স্পট গোল্ড প্রতি আউন্সের দাম এ দিন দাঁড়িয়েছে ১,৬৮৫.৪৬ ডলার। এর আগে বিশ্ববাজারে তেলের দাম আচমকা পড়ে যাওয়ায় এবং অন্যান্য সম্পত্তির দাম নিম্নমুখী হওয়ার জেরে ২% নামে সোনার দাম। রুপোর দামও ০.৩% পতনের ফলে কেজিপ্রতি ১৪.৮৮ ডলার কমেছে। বাজার বিশ্লেষকদের দাবি, বিশ্বজুড়ে আর্থিক পরিস্থিতি সামাল দিতে যে সমস্ত সংস্কারমূলক পদক্ষেপ করা হচ্ছে, তার জোরেই সোনার দামে রেকর্ড পতনের সম্ভাবনা নেই।

গত কয়েক মাসে দেশজুড়ে করোনাভাইরাস প্রকোপে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ও কেন্দ্রীয় প্রশাসনের সংস্কারমূলক পদক্ষেপের কারণে সোনার চাহিদায় ভাটা পড়েনি। তবে প্রতি বছর অক্ষয় তৃতীয়ায় দেশজুড়ে যে সোনার বিপুল চাহিদা দেখা দেয়, বর্তমান পরিস্থিতিতে তা আশা করা অসম্ভব, জানিয়েছেন কোটাক সিকিউরিটিস-এর কমোডিটি রিসার্চ বিভাগের প্রধান রবীন্দ্র রাও।

বন্ধ করুন