বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শুক্রবার আরও সস্তা হল সোনা ও রুপোর দাম
এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আন্তর্জাতিক দরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ভারতের বাজারে সোনার দাম নিম্নগামী রয়েছে। 
এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আন্তর্জাতিক দরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ভারতের বাজারে সোনার দাম নিম্নগামী রয়েছে। 

শুক্রবার আরও সস্তা হল সোনা ও রুপোর দাম

  • প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৪৯,১২২ টাকা। প্রতি কেজি রুপোর দাম যাচ্ছে ৬৬,১৫০ টাকা।

বৃহস্পতিবারের পরে শুক্রবারও বাজারে পড়ল সোনার দাম। এ দিন এমসিএক্স সূচকে ০.২% পতনের জেরে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৪৯,১২২ টাকা। সূচকে ০.৮% পতনের জেরে প্রতি কেজি রুপোর দাম যাচ্ছে ৬৬,১৫০ টাকা। 

গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আন্তর্জাতিক দরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ভারতের বাজারে সোনার দাম নিম্নগামী রয়েছে। মনে করা হচ্ছে,মার্কিন রাজস্ব বিভাগের ছাড়া বন্ডের সুদের হার চড়া থাকার ফলে সোনায় লগ্নি করার উৎসাহে ভাটা পড়েছে।

আমেরিকার সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলারের আর্থিক প্যাকেজের প্রস্তাব ঘোষণা করার পরে আন্তর্জাতিক বাজারে এ দিন সোনার দাম বেড়েছে। সেই সঙ্গে মার্কিন ফেডেরাল রিজার্ভ চেয়ারম্যান জেরোম পাওয়েল আর্থিক নীতিতে লাগাম দেওয়াতেও সোনার বাজার চড়েছে।

এ দিন স্পট গোল্ড সূচকে ০.২% উত্থান হওয়ায় প্রতি আউন্স সোনার দাম যাচ্ছে ১,৮৫০.৩৬ ডলার।সূচকে ০.৫% বৃদ্ধিঘটায় প্রতি আউন্স রুপোর দাম যাচ্ছে ২৫.৬৫ ডলার। 

তবে সোনার দাম বৃদ্ধি পেলেও ইটিএফ লগ্নিকারীরা এখনও নিশ্চল রয়েছেন। বিশ্বের বৃহত্তম গোল্ড ইটিএফ-এ গতকাল ০.৯% পতনের জেরে মোট হোল্ডিং পরপিমাণ দাঁড়িয়েছে ১,১৭১.২১ টন।

কোটাক সিকিউরিটিজ-এর তরফে বলা হয়েছে, ‘মার্কিন ডলার ও শেয়ার বাজারের সঙ্গেই সোনার বাজারও আপাতত অস্থির থাকবে। যদিও কোভিড সংক্রমণ সম্পর্কে জনমত এবং মার্কিন আর্থিক প্যাকেজ বড়সড় পতন রুখতে সক্ষম হবে। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় ইমপিচমেন্ট নিয়ে রাজনীতির প্রভাবও সোনার দর মাত্রাতিরিক্ত পড়া রোধ করায় কাজ করবে।’

বন্ধ করুন