বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > একধাক্কায় অনেকটা পতনের পর আরও বাড়ল সোনা, উর্ধ্বমুখী রুপোও
একধাক্কায় অনেকটা পতনের পর আরও বাড়ল সোনা, উর্ধ্বমুখী রুপোও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
একধাক্কায় অনেকটা পতনের পর আরও বাড়ল সোনা, উর্ধ্বমুখী রুপোও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

একধাক্কায় অনেকটা পতনের পর আরও বাড়ল সোনা, উর্ধ্বমুখী রুপোও

  • করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও টিকা নিয়ে যে আশা তৈরি হয়েছে, তার জেরে নির্দিষ্ট স্তরের মধ্যে থাকছে সোনার দর।

একধাক্কায় অনেকটা পতনের পর ভারতীয় বাজারে আবারও বাড়ল সোনার দাম। মঙ্গলবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ফেব্রুয়ারি গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯,০৩৫ টাকা। এক কিলোগ্রাম সিলভার ফিউচার্সের দর ০.২৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৬৩,৬৩৪ টাকা।

গত সেশনে সোনার দর একধাক্কায় ০.৮ শতাংশ কমেছিল। ০.৫ শতাংশ পতনের সাক্ষী ছিল রুপো। তবে কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিধিনিষেধ চাপানোর ফলে বিশ্বে চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় ভারতে সোনা ও রুপোর দাম বেড়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

বিভিন্ন দেশে লাগাতার করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং সংক্রমণ রুখতে বিভিন্ন গতিবিধিতে যে বিধিনিষেধ চাপানো হয়েছে, তার ফলে বিশ্ব বাজারেও বেড়েছে হলুদ ধাতুর দাম। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ০.২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১,৮৩১.৯ ডলার। প্রতি আউন্স রুপোর দামও ০.২ শতাংশ উর্ধ্বমুখী হয়ে দাঁড়িয়েছে ২৩.৮৭ ডলার। পড়েছে মার্কিন ডলারও। প্রতিদ্বন্দ্বীর তুলনায় মার্কিন ডলার সূচক দু'বছরের বেশি নীচে নেমে গিয়েছে।

তারইমধ্যে ইংল্যান্ডে করোনাভাইরাসের নয়া প্রজাতির সন্ধান মিলেছে। সেটির প্রভাবে লন্ডন, কেন্ট, এসেক্সের মতো ইংল্যান্ডে কয়েকটি প্রান্তে দ্রুত গতিতে করোনা ছড়িয়ে পড়তে পারে। তবে দ্রুত হারে ছড়িয়ে পড়লেও নয়া প্রজাতির ফলে যে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ করবে, তা প্রমাণের মতো এখনও কিছু 'মেলেনি' বলে জানিয়েছে ইংল্যান্ডের প্রশাসন। করোনা টিকাও যে আর কাজ করবে না, তেমন কোনও ইঙ্গিত মেলেনি।

তবে করোনা সংক্রান্ত বিধিনিষেধের জন্য দাম বাড়লেও তা নির্দিষ্ট সীমায় আটকে থাকছে।বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও টিকা নিয়ে যে আশা তৈরি হয়েছে, তার জেরে নির্দিষ্ট স্তরের মধ্যে থাকছে সোনার দর। একইসঙ্গে আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে মার্কিন প্রশাসনের যে কথাবার্তা চলছে, সেদিকেও নজর রাখছেন লগ্নিকারীরা।

বন্ধ করুন