বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বড়সড় উত্থানের পরদিনই মিলল স্বস্তি, সস্তা হল সোনা ও রুপো
বড়সড় উত্থানের পরদিনই সস্তা হল সোনা ও রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বড়সড় উত্থানের পরদিনই সস্তা হল সোনা ও রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

বড়সড় উত্থানের পরদিনই মিলল স্বস্তি, সস্তা হল সোনা ও রুপো

  • বড়সড় উত্থানের পরদিন মিলল স্বস্তি।

বড়সড় উত্থানের পরদিন মিলল স্বস্তি। শুক্রবার ভারতীয় বাজারে কমল সোনা এবং রুপোর দাম। অক্টোবরের পয়লা দিন এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.০৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৪৬,৫০৫ টাকা। অন্যদিকে, এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ০.০৫ শতাংশ কমে ৫৯,৫৮৮ টাকায় ঠেকেছে।

গত সেশনে একধাক্কায় বেড়েছিল সোনা এবং রুপোর দাম। ১০ গ্রাম সোনার দাম ১.৭ শতাংশ বা ৮০০ টাকা বেড়েছিল। অথচ চলতি সপ্তাহেই একটা সময় ছ'মাসের সর্বনিম্ন স্তরের (১০ গ্রামের দাম ৪৫,৭০০ টাকা) দিকে অগ্রসর হচ্ছিল হলুদ ধাতু। তারইমধ্যে গত সেশনে দু'শতাংশ বা ১,২০০ টাকার উত্থানের সাক্ষী ছিল এক কিলোগ্রাম রুপো। 

অন্যদিকে, গত সেশনের উত্থানের পর আজ বিশ্ব বাজারে সস্তা হয়েছে সোনা। ডলার সূচকের পতনের কারণে গত সেশনে এক সপ্তাহের সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছে গিয়েছিল হলুদ ধাতু। তবে শুক্রবার অনেকটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে মার্কিন ডলার। যা চলতি বছরের প্রায় শীর্ষ স্তরে পৌঁছে গিয়েছে। তার জেরে আজ এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ০.১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১,৭৫৪.৬৪ ডলার। বিশেষজ্ঞদের মতে, ডলার ঘুরে দাঁড়ানোয় অন্যান্য মুদ্রাধারীদের কাছে দামী হয়েছে সোনা। জিয়োজিত্‍ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের তরফে জানানো হয়েছে, যতদিন এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ১,৭৬০ ডলারের নীচে থাকবে, ততদিন উত্থান-পতনের সাক্ষী থাকবে হলুদ ধাতু। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে রুপো এবং হিরের দামও কমেছে।  এক আউন্স রুপোর দাম ০.৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ০.৬ শতাংশ। জিয়োজিতের তরফে জানানো হয়েছে, এক আউন্স রুপো যদি ২৩.১ ডলারের গণ্ডি না পার করতে পারে, তাহলে দুর্বলতা অব্যাহত থাকবে। নাহলে ঘুরে দাঁড়াবে রুপো। 

বন্ধ করুন