বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চারদিনের মধ্যে ৩ দিন পড়ল সোনা, বড়সড় পতনের পর হিমশিম রুপোর
চারদিনের মধ্যে ৩ দিন পড়ল সোনা, বড়সড় পতনের পর হিমশিম রুপোর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্। রয়টার্স)
চারদিনের মধ্যে ৩ দিন পড়ল সোনা, বড়সড় পতনের পর হিমশিম রুপোর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্। রয়টার্স)

চারদিনের মধ্যে ৩ দিন পড়ল সোনা, বড়সড় পতনের পর হিমশিম রুপোর

  • চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে ভারতীয় বাজারে ১০ গ্রাম সোনার দর ৪৯,৫০০ টাকা হয়ে গিয়েছিল।

ভারতের বাজারের আবারও নিম্নমুখী হল সোনা। বৃহস্পতিবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ডিসেম্বর গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.০৬ শতাংশ কমে হয়েছে ৫০,৩০৫ টাকা। তবে রুপোর দর কিছুটা বেড়েছে। এক কিলোগ্রাম সিলভার ফিউচার্সের দাম ০.২৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০,০৫৫ টাকা। 

গত সেশনে সোনার দর ০.৬ শতাংশ কমেছিল। গত ৭ অগস্ট ভারতীয় বাজারে ১০ গ্রাম সোনার দর রেকর্ড ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছানোর পর থেকে হলুদ ধাতুর উত্থান-পতন অব্যাহত হয়েছে। অধিকাংশ সময় পতন হয়েছে, কখনও আবার কিছুটা দাম বেড়েছে। গত চারদিনেই যেমন তিনদিন সোনার দর পড়েছে। তার ফলে সার্বিকভাবে সোনার দাম কম থাকছে। চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে ভারতীয় বাজারে ১০ গ্রাম সোনার দর ৪৯,৫০০ টাকা হয়ে গিয়েছিল।

একইভাবে গত অগস্টে এক কেজি রুপো রেকর্ড ৮০,০০০ টাকায় পৌঁছেছিল। তারপর বড়সড় পতনের সাক্ষী থেকেছে রুপো। গত সেশনে এক কেজি রুপোর দাম চার শতাংশ বা ২,৫০০ টাকা পড়েছিল।

নিম্নমুখী মার্কিন ডলার এবং আরও একটি করোনাভাইরাস আর্থিক প্যাকেজের প্রত্যাশায় বিশ্ব বাজারে সোনার দাম সামান্য পরিবর্তিত হয়েছে। অন্যদিকে, আবার আমেরিকার বেতন কাঠামো সংক্রান্ত পরিসংখ্যানের জেরে বিশ্ব বাজারে ঝুঁকির মাত্রা নিয়ে যে আশঙ্কা আছে, তার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ১,৮৮৪.৬৭ আউন্স হয়েছে।

বন্ধ করুন