বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাঁচদিনে চতুর্থবার পতন সোনার, কিছুটা বাড়ল রুপোর দাম
পাঁচদিনে চতুর্থবার পতন সোনার, কিছুটা বাড়ল রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
পাঁচদিনে চতুর্থবার পতন সোনার, কিছুটা বাড়ল রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

পাঁচদিনে চতুর্থবার পতন সোনার, কিছুটা বাড়ল রুপোর দাম

  • বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ভারতীয় বাজারে পড়ল সোনার দাম। তবে উর্ধ্বমুখী হল রুপোর দর। বৃহস্পতিবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ফেব্রুয়ারি গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.১৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫০,০৭০ টাকা। রুপোর দাম ০.১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৭,৬৪১ টাকা।

বৃহস্পতিবার পতনের ফলে গত পাঁচদিনে চতুর্থ বার কমল হলুদ ধাতুর দাম। ৪৮,০০০ টাকার গণ্ডি থেকে সোনা চাঙ্গা হলেও তা অগস্টের রেকর্ড দামের থেকে অনেকটাই কম। সেই মাসেই এক কেজি রুপোর দর প্রায় ৮০,০০০ টাকার গণ্ডি ছুঁয়ে ফেলেছিল। বুধবার বাজার বন্ধের সময় এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ছিল ৫০,১৪৯ টাকা। এক কেজি রুপোর দর ছিল ৬৭,৫৭৬ টাকা।

বিশ্ব বাজারে অবশ্য সোনার দামে তেমন হেরফের হয়নি। আমেরিকার অর্থনীতির গ্রাফ যে সামান্য উঠেছিল, তা কর্মহীনতার বৃদ্ধির দাবির ফলে আবারও ধাক্কা খেয়েছে। একইসঙ্গে দীর্ঘদিনের আর্থিক প্যাকেজ বিলে ভেটো প্রদানের হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ফলে কিছুটা সাবধানী অবস্থান নিয়েছেন লগ্নিকারীরা। তার প্রভাবে এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম দাঁড়িয়েছে ১,৮২৭.৬ ডলার। গত সেশনে সোনার দাম অবশ্য প্রায় এক শতাংশ বেড়েছিল। মার্কিন গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১,৮৭৭ ডলার। ভারতীয় বাজারের মতো বিশ্ব বাজারেও রুপোর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এক আউন্স রুপোর দাম এক শতাংশ বেড়ে হয়েছে ২৫.৩৮ ডলার।

তারইমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রিটেনে করোনার নয়া প্রজাতির ফলে বেড়েছে উদ্বেগ। বুধবার ব্রিটেনে প্রায় ৪০,০০০ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। তার জেরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

বন্ধ করুন