বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লক্ষ্মীবারে বাড়ল সোনার দাম, বিয়ের মরশুমের মধ্যে কলকাতায় কত দর পড়ছে?
বৃহস্পতিবার ভারতীয় বাজারে বাড়ল সোনা এবং রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বৃহস্পতিবার ভারতীয় বাজারে বাড়ল সোনা এবং রুপোর দাম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

লক্ষ্মীবারে বাড়ল সোনার দাম, বিয়ের মরশুমের মধ্যে কলকাতায় কত দর পড়ছে?

  • বৃহস্পতিবার ভারতীয় বাজারে বাড়ল সোনা এবং রুপোর দাম।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় বাজারে বাড়ল সোনা এবং রুপোর দাম। এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ০.২৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৭,৫৫৬ টাকা। অন্যদিকে, এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ০.৪৩ শতাংশ বেড়ে ৬২,৯০৫ টাকায় ঠেকেছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এমসিএক্স সূচকে ৪৭,৮০০ টাকায় বাধা পাচ্ছে সোনা। সহায়তা পাচ্ছে ৪৭,৩০০ টাকা। সেই পরিস্থিতিতে যতক্ষণ না ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৭,৭০০ টাকার স্তর পার করতে পারছে না, ততক্ষণ হলুদ ধাতুর দুর্বলতা অব্যাহত থাকবে। অন্যদিকে, এক কেজি রুপোর দাম ৬২,২০০ টাকায় সহায়তা পাচ্ছে। বাধা পাচ্ছে ৬৩,৫২০ টাকায়।

কলকাতায় বৃহস্পতিবার বাজার খোলার সময় কত দাম ছিল?

১) ২৪ ক্যারাট, পাকা সোনা (১০ গ্রাম) – ৪৮,৩৫০ টাকা  

২) ২২ ক্যারাট, গয়না সোনা (১০ গ্রাম) – ৪৫,৯০০ টাকা।  

৩) ২২ ক্যারাট, হলমার্ক সোনার গয়না (১০ গ্রাম) - ৪৬,৬০০ টাকা। 

৪) রুপোর বাঁট (প্রতি কিলোগ্রাম) – ৬৩,৭০০ টাকা। 

৫) খুচরো রুপো (প্রতি কিলোগ্রাম) – ৬৩,৮০০ টাকা।

ভারতে সোনার দামের ভবিষ্যৎ কী?

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির কারণে চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত সোনা এবং রুপোর উত্থান অব্যাহত থাকবে। চলতি বছরের শেষে ৫১,০০০ টাকা ছুঁয়ে ফেলতে পারে ১০ গ্রাম সোনা। আর এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ৭২,০০০ টাকা থেকে ৭৪,০০০ টাকার স্তরে পৌঁছে যেতে পারে।

বিষয়টি নিয়ে আইআইএফএল সিকিউরিটিজের কমোডিটি এবং কারেন্সি ট্রেডের ভাইস-প্রেসিডেন্ট অনুজ গুপ্তা জানান, বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতি, দুর্বল মার্কিন পরিসংখ্যান এবং চাহিদা বৃদ্ধির প্রভাব পড়ছে সোনা ও রুপোর দামে। যে ধারা আগামী কয়েক মাস ধরে চলতে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত সোনা এবং রুপোর দামের উত্থান অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, ‘চলতি বছরের শেষের দিকে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়ে ৫০,০০০ টাকা থেকে ৫১,০০০ টাকা হতে পারে। আর এমসিএক্স সূচকে এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ৭২,০০০ টাকা থেকে ৭৪,০০০ টাকায় পৌঁছে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।’

বন্ধ করুন