বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সপ্তাহের শুরুতেই রেকর্ডের থেকে প্রায় ৯,২০০ টাকা কম সোনা, দাম বাড়ল রুপোরও
সপ্তাহের শুরুতেই রেকর্ডের থেকে প্রায় ৯,২০০ টাকা কম সোনা, দাম বাড়ল রুপোরও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
সপ্তাহের শুরুতেই রেকর্ডের থেকে প্রায় ৯,২০০ টাকা কম সোনা, দাম বাড়ল রুপোরও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

সপ্তাহের শুরুতেই রেকর্ডের থেকে প্রায় ৯,২০০ টাকা কম সোনা, দাম বাড়ল রুপোরও

  • চলতি বছর সোনার দাম প্রায় ছ'শতাংশ পড়েছে।

সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবসেই ভারতীয় বাজারে ঘুরে দাঁড়াল সোনা।  সোমবার ১০ গ্রাম সোনার দাম ০.৬ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৭,০০৪ টাকা। সোনার হারেই বেড়েছে রুপোর দর। এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ০.৬ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৬৮,৭৮৯ টাকা। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, গত সপ্তাহে বড়সড় পতনের পর চলতি সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবসে ইতিবাচক থাকবে সোনা। আনন্দ রথি শেয়ারস অ্যান্ড স্টক ব্রোকার্সের রিসার্চ অ্যানালিস্ট-কমোডিজ ফান্ডামেন্টাল জিগর ত্রিবেদী জানান, এপ্রিলে এমসিএক্স সূচকে সোনার দাম চার শতাংশ বেড়েছে। তা সত্ত্বেও চলতি বছর সোনার দাম প্রায় ছ'শতাংশ পড়েছে। তবে রেকর্ড দরের (গত বছর অগস্টে ১০ গ্রামের দাম ৫৬,২০০ টাকা) তুলনায় এখনও প্রায় ৯,২০০ টাকা কম আছে সোনার দর।

তবে খুচরো ব্যবসায়ীদের উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বিধিনিষেধের কারণে ভারচতে সোনার চাহিদা ধাক্কা খেয়েছে। স্থানীয় স্তরে বিধিনিষেধের জেরে আগামী কয়েক সপ্তাহে সোনার চাহিদা কম থাকবে বলে মত খুচরো ব্যবসায়ীদের। যদিও এখন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিয়ের মরশুম চলছে। তা সত্ত্বেও চাহিদা বাড়বে না বলে ধারণা সংশ্লিষ্ট মহলের।

শক্তিশালী ডলারের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দরের হেরফের হয়নি। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ১,৭৭০.৬৬ ডলারে ঠেকেছে। রুপো অবশ্য অটল থেকেছে। এক আউন্স রুপোর দাম দাঁড়িয়েছে ২৫.৯ ডলারে। শক্তিশালী ডলার সূচকের কারণে অন্যান্য মুদ্রাধারীদের কাছে সোনা আরও দামী হয়েছে।

বন্ধ করুন