বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সপ্তাহের শুরুতেও দুর্বল থাকল সোনা, রেকর্ডের থেকে সস্তা ১০,০০০ টাকা
সপ্তাহের শুরুতেও দুর্বল থাকল সোনা, রেকর্ডের থেকে সস্তা ১০,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস)
সপ্তাহের শুরুতেও দুর্বল থাকল সোনা, রেকর্ডের থেকে সস্তা ১০,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস)

সপ্তাহের শুরুতেও দুর্বল থাকল সোনা, রেকর্ডের থেকে সস্তা ১০,০০০ টাকা

  • সপ্তাহের শুরুতে ভারতীয় বাজারে দুর্বল থাকল সোনা এবং রুপো।

সপ্তাহের শুরুতে ভারতীয় বাজারে দুর্বল থাকল সোনা এবং রুপো। সোমবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম সামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬,৫৪৩ টাকা। অন্যদিকে, রুপোর দাম অবিচল আছে। এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম পড়ছে ৬০,৫৩০ টাকা।

গত সেশনে সোনার দাম কিছুটা কমে গিয়েছিল। গত শুক্রবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ডিসেম্বর গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছিল ৪৬,৫০০ টাকা। সেপ্টেম্বরে সোনার দাম চার শতাংশের মতো কমেছিল। অন্যদিকে, রুপোর দাম ১.৫ শতাংশ বেড়েছিল। এমনিতে গত বছর অগস্টে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। আপাতত রেকর্ডের থেকে ১০,০০০ টাকার মতো কম আছে ১০ গ্রাম সোনার দাম।

বিশ্ব বাজারেও দুর্বল আছে সোনা। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম কিছুটা কমে দাঁড়িয়েছে ১,৭৫৯ ডলার। গত দুটি সেশনে পতনের পর মার্কিন ডলার কিছুটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে। জিয়োজিত্‍ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের তরফে জানানো হয়েছে, আর্থিক বৃদ্ধি নিয়ে আশঙ্কার মধ্যে চলতি সপ্তাহের শেষ লগ্নে মার্কিন কর্মসংস্থান সংক্রান্ত পরিসংখ্যানের দিকে তাকিয়ে আছেন লগ্নিকারীরা। যদি এক আউন্স সোনা ১,৭৬০ ডলারের সমর্থন পেতে থাকে, তাহলে ঘুরে দাঁড়াতে পারে হলুদ ধাতু। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে রুপোর দাম কমেছে। এক আউন্স রুপোর দাম ০.১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ২২.৫১ ডলার। 

উৎসবের মরশুমে সোনা কেনার জন্য কি আরও অপেক্ষা করা উচিত নাকি এখনই কিনে নেওয়া উচিত? 

আইআইএফএল সিকিউরিটিজের অনুজ গুপ্ত জানান, চলতি মাসের প্রথম ১৪-১৫ দিনে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম আরও কমে ৪৫,৫০০ টাকা থেকে ৪৫,০০০ টাকায় নেমে যেতে পারে। কারণ সেই সময় মার্কিন ডলার শক্তিশালী থাকার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। যখনই মার্কিন ডলারের দুর্বলতার কোনও লক্ষণ ধরা পড়বে, তখনই আন্তর্জাতিক বাজারে এক আউন্স সোনার দাম ১,৭৫০ ডলার থেকে ১,৭৬০ ডলারের গণ্ডি পার করে যেতে পারে। যা পরবর্তী এক মাসে ১,৮০০ ডলার থেকে ১,৮৫০ ডলারের স্তরে ছুঁয়ে ফেলার সম্ভাবনা আছে। তার প্রভাব পড়বে ভারতীয় বাজারেও। পরবর্তী এক মাসে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৮,০০০ টাকা থেকে ৪৮,৫০০ টাকার কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারে।

একইসুরে গঙ্গানগর কমিউনিটি লিমিটেডের অমিত খাড়ে জানান, এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ৪৫,০০০ টাকা থেকে ৪৬,০০০ টাকার মধ্যে থাকলে সোনার লগ্নিকারীরা ভালো সুযোগ পাবেন। যা রেকর্ড দরের থেকে ১০,০০০ টাকারও কম। আগামী তিন মাসে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪,০০০ থেকে ৫,০০০ টাকা বৃদ্ধি পেতে পারে।

বন্ধ করুন