বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দু'দিনে ১,৫০০ টাকা বৃদ্ধির পর পতন সোনার, কমল রুপোও
দু'দিনে ১,৫০০ টাকা বৃদ্ধির পর পতন সোনার, কমল রুপোও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
দু'দিনে ১,৫০০ টাকা বৃদ্ধির পর পতন সোনার, কমল রুপোও। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

দু'দিনে ১,৫০০ টাকা বৃদ্ধির পর পতন সোনার, কমল রুপোও

  • গত দুই সেশনে ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়েছিল ১,৫০০ টাকা।

শেষ দুই সেশনে একধাক্কায় বেড়েছিল দাম। সেই উর্ধ্বমুখী প্রবণতা কাটিয়ে বুধবার ভারতীয় বাজারে পড়ল সোনা এবং রুপোর দর। এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫১,৫৪৬ টাকা। আরও বেশি পতনের সাক্ষী থেকেছে রুপো। এক কেজি রুপোর দাম ০.৭ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৭০,৩২৫ টাকা।

বিশ্ব বাজারের রেশ ধরে গত সেশনে সোনার দাম ০.৬ শতাংশ বেড়েছিল। সবমিলিয়ে গত দুই সেশনে ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়েছিল ১,৫০০ টাকা। ক্যাপিটালভায়ার মতে, ১০ গ্রাম সোনা ৫১,২০০ টাকায় সহায়তা পেয়েছে। সঙ্গে এখন যেভাবে বাজার চলছে, তাতে ১০ গ্রাম সোনার দর ৫২,০০০ টাকার কাছে থাকতে পারে। অন্যদিকে গত সেশনে রুপোর উত্থান হয়েছিল ১.২ শতাংশ। 

গত বছর ২৫ শতাংশ উত্থানের পর বিশ্বের কয়েকটি প্রান্তে আবারও সোনার দাম বাড়তে শুরু করেছে। বিশেষত উর্ধ্বমুখী করোনাভাইরাস সংক্রমণ এবং করোনা সংক্রান্ত লকডাউনের ফলে গত কয়েকদিনে বেড়েছে সোনার দর। ক্যাপিটালভায়ারের মতে, করোনা পরিস্থিতিতে আবারও সুরক্ষিত সম্পত্তির দিকে ঝুঁকেছেন লগ্নিকারীরা। তার জেরে আবারও বাড়তে শুরু করেছে সোনার দাম। তারইমধ্যে মার্কিন ডলার ঘুরে দাঁড়ানোয় বিশ্ব বাজারে সোনার দাম একটি বন্ধনীর মধ্যেই থাকছে। খাতায়কলমে বিশ্ব বাজারে ইতিবাচক থাকছে সোনা। এক আউন্স সোনার দর ১,৯৫০ ডলারের নীচে থাকছে। 

বিশ্ব বাজারে দিনের শুরুতে এক আউন্স সোনার দাম ১,৯৫৫৫ ডলারে পৌঁছে গিয়েছিল। যা দু'মাসে সর্বোচ্চ। পরে তা সামান্য কমে দাঁড়িয়েছে ১,৯৪৮.২ ডলারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, আমেরিকার জর্জিয়ার নির্বাচনের ফলাফলের দিকে আছেন লগ্নিকারীরা। যদি ডেমোক্র্যাটরা দুটি আসনে জিতে যায়, তাহলে জো বাইডেনের আমলে আর্থিক প্যাকেজের পথ প্রশস্ত হবে।

বন্ধ করুন