বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টানা পতনের পর সামান্য বাড়ল সোনার দাম, রেকর্ড দরের থেকে ৭০০০ কম
ছবিটি প্রতীকী, সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস
ছবিটি প্রতীকী, সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস

টানা পতনের পর সামান্য বাড়ল সোনার দাম, রেকর্ড দরের থেকে ৭০০০ কম

  • গত কয়েকদিন ধরে বিশ্ব বাজারে কমেছে সোনার দর। সেই রেশ ধরে ভারতীয় বাজারেও নিম্নমুখী ছিল হলুদ ধাতুর দাম।

গত কয়েকদিন ধরে বিশ্ব বাজারে কমেছে সোনার দর। সেই রেশ ধরে ভারতীয় বাজারে গত বেশ কয়েকদিন ধরে কিছুটা পড়েছে সোনা এবং রুপোর দাম। এই আবহে শুক্রবার সামান্য বাড়ল সোনা-রুপোর দর। শুক্রবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.১৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯,২৭৫ টাকা। তবে গত বছরের 'রেকর্ড হাই' থেকে এখনও সোনার দাম ৭০০০ কম। এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ০.৫ শতাংশ দাম বেড়ে হয়েছে ৭১,৩৭৫ টাকা।

গত সেশনে সোনার দর নিম্নমুখী ছিল। এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম কমে ৪৮ হাজার ৮০০-র ঘরে পৌঁছেছিল। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ভারতীয় বাজারে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৮,৪০০ টাকায় সমর্থন পাচ্ছে। আর এক কিলোগ্রাম রুপো সমর্থন পাচ্ছে ৬৯,৯৫৩ টাকায়। এমনিতে গত সপ্তাহে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৯,৭০০ টাকা পৌঁছানোর পর চলতি সপ্তাহে হলুদ ধাতুর উত্থান-পতন জারি আছে। বিশেষত বিশ্ব বাজারের নিম্নমুখী প্রবণতা ধরে কমেছে হলুদ দাম। এক সপ্তাহে ১,০০০ টাকা সস্তা হয়েছে সোনা।

এদিকে গত কয়েকদিন যাবত বিশ্ব বাজারে সোনার দাম ভালোমতোই পড়েছিল। তবে এদিন এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯০০ ডলার। বিশেষজ্ঞদের মতে, মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি সংক্রান্ত পরিসংখ্যানের কারণে সতর্কভাবে এগিয়েছেন লগ্নিকারীরা। তাই গত কয়েকদিন দাম পড়েছে সোনার। তাছাড়া শক্তিশালী ডলারের কারণে অন্য গ্রহীতাদের কাছে সোনার চাহিদা কমেছে। তাই দাম কম ছিল সোনার।

বন্ধ করুন