বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাওবাদীদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি ছত্তিশগড় সরকার, তবে একটা শর্তে…
ছত্তিশগড়ে মাওবাদীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি ছত্তিশগড় সরকার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

মাওবাদীদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি ছত্তিশগড় সরকার, তবে একটা শর্তে…

  • ২০১৯ সালে সরকার গড়ার পরে হিন্দুস্তান টাইমসের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন, মাওবাদী কার্যকলাপ আর্থ-রাজনৈতিক সমস্যা। সিকিউরিটি ফোর্স দিয়ে এটা মেটানো যাবে না।

রীতেশ মিশ্র

সংবিধানের প্রতি যদি মাওবাদীরা তাদের আস্থা রাখেন তবে রাজ্য সরকার তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি। শুক্রবার একথা জানিয়ে দিলেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। রাজ্যে মাওবাদীদের কার্যকলাপ কমেছে বলেও সন্তোষও প্রকাশ করেন তিনি। সংবাদমাধ্যমের সামনে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সেই প্রথম দিন থেকে আমি বলে আসছি, আমরা সরকার তৈরি করেছি। যদি মাওবাদীরা ভারতের সংবিধানের প্রতি আস্থা প্রকাশ করেন তবে যে কোনও মঞ্চে তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে সরকার রাজি।

এদিকে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তালিকা অনুসারে এতদিন পর্যন্ত বস্তার ডিভিশন ছিল মাওবাদীদের অত্যন্ত প্রভাবযুক্ত এলাকা। তবে বর্তমানে সেই এলাকাটিতে মাওবাদীদের প্রভাব আগের তুলনায় কিছুটা কমেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এব্যাপারে বাঘেল জানিয়েছেন, এটা ঠিকই যে রাজ্যে মাওবাদী কার্যকলাপ ক্রমাগত কমছে। আগে ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়াতে শুধু মাওবাদীদের কার্যকলাপের খবরই প্রাধান্য পেত।নানা ধরণের জনকল্যাণমূলক কাজকর্ম ও মানুষের বিশ্বাস অর্জনের মাধ্যমে মাওবাদীদের কার্যকলাপ অনেকটাই কমেছে।

এদিকে সরকারি পরিসংখ্যান বলছে ২০১৭ সালে মাওবাদী সংক্রান্ত ঘটনা ছিল ৪৭৯টি। ২০২১ সালে তা কমে দাঁড়ায় ২২৬টি। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আমরা বস্তারে শান্তি ও স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে চাই। এদিকে ২০১৯ সালে সরকার গড়ার পরে হিন্দুস্তান টাইমসের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, মাওবাদী কার্যকলাপ আর্থ-রাজনৈতিক সমস্যা। সিকিউরিটি ফোর্স দিয়ে এটা মেটানো যাবে না।

 

বন্ধ করুন