বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কেন্দ্র ও রাজ্য সমন্বয় হচ্ছে তো? পুনর্গঠিত কাউন্সিলের মাথায় মোদী, সদস্য মমতারা
ফাইল ছবি: রয়টার্স(এডিটেড) (Reuters)

কেন্দ্র ও রাজ্য সমন্বয় হচ্ছে তো? পুনর্গঠিত কাউন্সিলের মাথায় মোদী, সদস্য মমতারা

গত সপ্তাহে জারি করা একটি আনুষ্ঠানিক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, ১০ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও আন্তঃরাজ্য পরিষদে স্থায়ী আমন্ত্রিত হিসাবে থাকবেন। সরকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চেয়ারম্যান করে পরিষদের স্থায়ী কমিটিরও পুনর্গঠন করেছে।

লক্ষ্য সহযোগিতামূলক ফেডারেলিজমের প্রসার। আন্তঃরাজ্য পরিষদ পুনর্গঠন করল কেন্দ্রীয় সরকার। নয়া পরিষদে আগের মতোই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চেয়ারম্যান পদে আসীন থাকবেন। সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং ছয়জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদের মন্ত্রী সদস্য হিসেবে রয়েছেন। তাহলে কোথায় পরিবর্তন হচ্ছে?

গত সপ্তাহে জারি করা একটি আনুষ্ঠানিক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, ১০ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও আন্তঃরাজ্য পরিষদে স্থায়ী আমন্ত্রিত হিসাবে থাকবেন। সরকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চেয়ারম্যান করে পরিষদের স্থায়ী কমিটিরও পুনর্গঠন করেছে।

যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের কাউন্সিলের সদস্য করা হয়েছে:

রাজনাথ সিং, অমিত শাহ, নির্মলা সীতারামন, নরেন্দ্র সিং তোমার, বীরেন্দ্র কুমার, হরদীপ সিং পুরী, নীতিন গড়করি, এস জয়শঙ্কর, অর্জুন মুণ্ডা, পীযূষ গোয়েল, ধর্মেন্দ্র প্রধান, প্রহ্লাদ জোশী, অশ্বিনী বৈষ্ণব, গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত, কিরেন রিজিজু এবং ভূপেন্দ্র যাদব।

আন্তঃ-রাজ্য পরিষদ/ ইন্টার-স্টেট কাউন্সিল কী?

ভারতীয় সংবিধানের ২৬৩ নম্বর অনুচ্ছেদে একটি আন্তঃরাষ্ট্রীয় কাউন্সিল প্রতিষ্ঠার বিধান রয়েছে। কেন্দ্র ও রাজ্যগুলির মধ্যে সমন্বয় বাড়ানোই এর মূল উদ্দেশ্য।

আন্তঃ-রাজ্য পরিষদ একটি সুপারিশকারী সংগঠন। এটি কেন্দ্র এবং রাজ্য বা রাজ্যগুলির মধ্যে অভিন্ন স্বার্থের বিষয়গুলি তদন্ত ও আলোচনা করা জন্য গঠিত। বিভিন্ন বিষয়ে নীতি ও পদক্ষেপ গ্রহণের ক্ষেত্রে সঠিক সমন্বয় প্রয়োজন। তাতেই সাহায্য করে এই কাউন্সিল। 

আন্তঃরাজ্য পরিষদের বছরে তিনবার বৈঠক করার নিয়ম।

এতে রাজ্যগুলির সাধারণ স্বার্থের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এগুলি চেয়ারম্যান কর্তৃক কাউন্সিলের কাছে উত্থাপন করতে পারবেন সদস্যরা।

কাউন্সিলের মূল উদ্দেশ্য হল দেশে সমবায় ফেডারেলিজমের(cooperative federalism) প্রচার ও সমর্থনের জন্য একটি শক্তিশালী প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো তৈরি করা। নিয়মিত সভা আয়োজনের মাধ্যমে কাউন্সিল এবং জোনাল কাউন্সিলগুলিকে সক্রিয় করা এর কাজ।

এটি কেন্দ্র-রাজ্য এবং আন্তঃ-রাজ্য সম্পর্কের সমস্ত বিষয়গুলিকে জোনাল কাউন্সিল এবং আন্তঃ-রাজ্য পরিষদ দ্বারা বিবেচনা করার সুযোগ দেয়। তাদের সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্য একটি সুষ্ঠ ব্যবস্থা তৈরি করে এই কাউন্সিল।

একটি পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে যে, আন্তঃরাজ্য পরিষদের স্থায়ী কমিটির গঠনে অমিত শাহ (চেয়ারম্যান) এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারমন, নরেন্দ্র সিং তোমার, বীরেন্দ্র কুমার এবং গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত অন্তর্ভুক্ত থাকবেন।

তাছাড়া অন্ধ্রপ্রদেশ, অসম, বিহার, গুজরাট, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, পঞ্জাব এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীরাও কাউন্সিলের স্থায়ী কমিটির সদস্য।

স্থায়ী কমিটি কাউন্সিলের বিবেচনার জন্য ক্রমাগত পরামর্শ দেবে। তাছাড়াও তারা বিভিন্ন বিষয়গুলি পরিচালনা করবে।

কমিটি, প্রয়োজন সাপেক্ষে বিশেষজ্ঞদের এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মতামতের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে পারে।

বন্ধ করুন